.ঢাকা, শুক্রবার   ২২ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৮ ১৪২৫,   ১৫ রজব ১৪৪০

রাজধানীতে ডাকাত দলের ৬ সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৭:২৮ ১২ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৭:২৮ ১২ জানুয়ারি ২০১৯

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রাজধানীর মিরপুর থেকে ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি-উত্তর) গুলশান জোনাল টিম শুক্রবার রাতে তাদের গ্রেফতার করে। 

গ্রেফতাররা হলেন- গৌতম রাজবংশী (৩২), মো. আব্দুস সালাম (২৪), সুব্রত কুমার ঘোষ ওরফে মো. শুভ (২৭), সুব্রত কুমার দত্ত (২৮), মো. মাসুদ রানা (২৫) ও মো. মহিন (২০)। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত ২টি চাপাতি ও ১টি চাকু উদ্ধার করা হয়।

ডিএমপি’র জনসংযোগ ও গণমাধ্যম বিভাগের ডিসি মো. মাসুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, গ্রেফতাররা বিভিন্ন কৌশলে পথচারীদের টাকা-পয়সা ও মূল্যবান সামগ্রী লুটে নেয়। তারা কখনো মোটরসাইকেল, কখনো প্রাইভেটকার বা মাইক্রোবাস নিয়ে মিরপুর, কল্যাণপুর, টেকনিক্যাল, গাবতলী বাস স্ট্যান্ডসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মিশনে বের হয়। পথচারীদের পথ আটকে টাকা-পয়সা, ভ্যানিটি ব্যাগ, গলার চেইন ও মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নেয়। এসব সংবাদ পেয়ে মাঠে নামে ডিবি। প্রতিদিনের মতো তারা লুটের উদ্দেশে বের হলে গোয়েন্দারা তাদের গ্রেফতার করে।
 
গ্রেফতাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, দীর্ঘদিন ধরে তারা মিরপুর ও আশপাশের এলাকায় সন্ধ্যা ও ভোরে পথচারীদের গতিরোধ করে মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নেয়। তারা একাধিক গ্রুপে বিভক্ত হয়ে কখনো দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে, আবার কখনো অভিনব কলা কৌশল অবলম্বন করে ছিনতাই করত।

মো. মাসুদুর রহমান আরো জানান, এক নারী অভিযোগ করেছেন, কিছুদিন আগে রিকশায় যাওয়ার সময় মিরপুর থানা রোডে এক অভিনব ছিনতাইয়ের শিকার হন তিনি। প্রথমে দুই যুবক তার রিকশা থামিয়ে স্থানীয় একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের সদস্য বলে তারা পরিচয় দেয়। তার বাসার গৃহকর্মীকে ৩শ’ টাকা দান করতে চায়। কথা বলার এক পর্যায়ে তারা ওই নারীকে বলে আপনার সব গয়না ভ্যানিটি ব্যাগে ঢুকিয়ে নিয়ে যান। সামনে যারা আছে তারা আপনাকে গয়না দেখে বড়লোক ভাবতে পারে। তাদের কথামতো তিনি গলার চেইন, কানের দুল ও হাতের বালা ভ্যানিটি ব্যাগে রাখেন। এমন সময় যুবকরা হঠাৎ তার ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়।
    
গ্রেফতাররা সবাই উঠতি বয়সের যুবক ও মাদকাসক্ত। তারা সারা রাত ঘোরাফেরা করে। সুবিধাজন স্থানে ছিনতাই ও ডাকাতি করে থাকে। দিন ঘুমিয়ে কাটায়। 

এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এসআই