রাজধানীতে কী কী খোলা-বন্ধ আজ

ঢাকা, সোমবার   ২৪ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ১২ ১৪২৬,   ১৯ শাওয়াল ১৪৪০

রাজধানীতে কী কী খোলা-বন্ধ আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৫:৫০ ১৩ জুন ২০১৯   আপডেট: ০৫:৫০ ১৩ জুন ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ব্যস্তময় এই শহরে স্বস্তির সাক্ষাতে সবাই ছুটছি দিগ্বিদিক। কর্মব্যস্ত নগরে ছোটাছুটির গন্তব্য অনেকটাই নির্ধারিত। শপিংমল, পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্রগুলোতেই থাকে সবার ঝোঁক। তবে এগুলোরও রয়েছে ছুটির দিন। আজ আপনি ফ্রি থাকলেও পছন্দের জায়গাটি কি খোলা আছে? এমন জটলা প্রতিনিয়তই মাথায় ঘুরপাক খায়। আসুন জেনে নেয়া যাক, রাজধানীতে আজ বৃহস্পতিবার কী কী বন্ধ বা খোলা থাকছে-

বন্ধ থাকবে যে সব এলাকা
মোহাম্মাদপুর, আদাবর, শ্যামলী, গাবতলী, মিরপুর স্টেডিয়াম, চিড়িয়াখানা, টেকনিক্যাল, কল্যাণপুর, আসাদগেট, ইস্কাটন, মগবাজার, বেইলি রোড, সিদ্ধেশ্বরী, মালিবাগের একাংশ, শাজাহানপুর, শান্তিনগর, শহীদবাগ, শান্তিবাগ, ফকিরেরপুল, পল্টন, মতিঝিল, টিকাটুলি, আরামবাগ, কাকরাইল, বিজয়নগর, সেগুনবাগিচা, হাইকোর্ট ভবন এলাকা, রমনা শিশু পার্ক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, নিউমার্কেট।

বন্ধ থাকবে যে সব মার্কেট
মোহাম্মাদপুর টাউন হল মার্কেট, কৃষি মার্কেট, আড়ং, বিআরটিসি মার্কেট, শ্যামলী হল মার্কেট, মুক্তিযোদ্ধা সুপার মার্কেট, মাজার কর্পোরেট মার্কেট, মুক্ত বাংলা শপিং কমপ্লেক্স, শাহ্ আলী সুপার মার্কেট, মিরপুর স্টেডিয়াম মার্কেট, মৌচাক মার্কেট, আনারকলি মার্কেট, আয়েশা শপিং কমপ্লেক্স, কর্নফুলি গার্ডেন সিটি, কনকর্ড টুইন টাওয়ার, ইস্টার্ন প্লাস, সিটি হার্ট, জোনাকি সুপার মার্কেট, গাজী ভবন, পল্টন সুপার মার্কেট, স্টেডিয়াম মার্কেট-১, এবং ২, গুলিস্থান কমপ্লেক্স, রমনা ভবন, খদ্দর মার্কেট, পীর ইয়ামেনি মার্কেট, বাইতুল মুকাররম মার্কেট, আজিজ কোওপারেটিভ মার্কেট, সাকুরা মার্কেট।

বন্ধ থাকবে যে সব দর্শনীয় স্থান
বিজ্ঞান জাদুঘর: ঢাকার আগারগাঁও এলাকার জ্ঞান-বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক উপাদান নিয়ে গঠিত হয়েছে বিজ্ঞান জাদুঘর। সপ্তাহের প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সকলের জন্য খোলা থাকে। শুধু শুক্রবার দিন বিকাল ৩টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বিজ্ঞান যাদুঘরের সাপ্তাহিত বন্ধের দিন হচ্ছে বৃহস্পতিবার।

সামরিক যাদুঘর: এটি বিজয় সরণিতে অবস্থিত। প্রতিদিন সকাল ১০-৩০মি: থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ থাকে।

আহসান মঞ্জিল: বুড়িগঙ্গার তীরে অবস্থিত আহসান মঞ্জিল এক ঐহিতাসিক ভবন। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে ইতিহাসের স্মৃতি। প্রাচীন সভ্যতার ধারক ও বাহক হিসেবে আহসান মঞ্জিল জাদুঘরের গুরুত্ব অপরিসীম। এটি এক সময় ব্রিটিশ ভরতীয় উপাধিপ্রাপ্ত ঢাকার নবাবদের বাসগৃহ ছিল। বিল্ডিংটি স্থাপত্যে দৃষ্টিনন্দন। যেকোনো মানুষের হৃদয়কে আকর্ষণ করে এর স্থাপনা কৌশল। জাদুঘরটির প্রথমতলা ও দ্বিতীয়তলায় রয়েছে নবাবদের ঐতিহ্যপূর্ণ জীবনযাত্রার চিত্র। জাদুঘরটি সর্বমোট ২টি গ্যালারীতে ভাগ করে বিভিন্ন বিষয়কে উপস্থাপন করা হয়েছে। সাপ্তাহিক বন্ধ বৃহস্পতিবার, শুক্রবার বিকেল ৩.০০ থেকে সন্ধ্যা ৭.০০ পর্যন্ত। শনিবার-বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪.৩০টা পর্যন্ত।

বাংলাদেশ জাতীয় যাদুঘর: রাজধানী ঢাকা শহরের দর্শনীয় স্থানের মধ্যে জাতীয় যাদুঘরটি অন্যতম। ঢাকার প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে এটি অবস্থিত। পিজি হাসপাতালের উল্টোদিকে এবং জাতীয় গ্রন্থাগারের পাশে মনোরম পরিবেশে আধুনিক কারুকার্য ও নকশায় নির্মিত এই যাদুঘরটি অগণিত মানুষের হৃদয় জয় করেছে। পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন এবং সবুজ বাগানে ঘেরা চত্বরটি সহজেই দর্শকের হৃদয়কে আকর্ষন করে। এই যাদুঘর একবার মন দিয়ে দেখলে বাংলাদেশ সম্পর্কে একটি স্বচ্ছ ধারণা পাওয়া যায়। 

বৃহস্পতিবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া জাতীয় যাদুঘর গ্যালারী শনিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত সকাল ১২.৩০ মিনিট হতে বিকেল ৪.৩০ মিনিট পর্যন্ত খোলা থাকে। এছাড়া শুক্রবার বিকেল ৩.৩০ মিনিট থেকে সন্ধা ৭.০০টা পর্যন্ত খোলা থাকে। জাতীয় জাদুঘরে প্রবেশের জন্য জনপ্রতি দশ টাকা ফি নেয়া হয়। তিন বছরের নিচের বয়সের শিশুদের কোনো ফি প্রয়োজন হয় না। জাদুঘরের ভিতরে প্রতি তলায় যেসব জিনিস আছে সেগুলো সম্পর্কে নির্দেশিকা দেয়া রয়েছে। এই নির্দেশিকা অনুসারে যে কোন পর্যটক জাদুঘর প্রদর্শন করতে পারবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর