রাজধানীতে একইসঙ্গে হলিউডের তিন ছবি
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=112939 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

রাজধানীতে একইসঙ্গে হলিউডের তিন ছবি

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৩৫ ১৮ জুন ২০১৯   আপডেট: ২২:৩৬ ১৮ জুন ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সে হলিউডের তিনটি ছবি একসঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে। শুক্রবার থেকে ছবি তিনটির প্রদর্শনী শুরু হবে। এই তিনটি ছবি হলো- ‘মেন ইন ব্ল্যাক: ইন্টারন্যাশনাল’, ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস ২’ এবং ‘টয় স্টোরি ৪’।

প্রায় সাত বছর আগে মুক্তি পেয়েছিল ‘মেন ইন ব্ল্যাক’ সিরিজের সবশেষ ছবি। এরপর লম্বা বিরতির পর পর্দায় এসেছে সিরিজের চতুর্থ ছবি ‘মেন ইন ব্ল্যাক: ইন্টারন্যাশনাল’। ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া অ্যানিমেশন ছবি ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস’ রাতারাতি ব্লকবাস্টারে স্থান পায়। 

দর্শকরা অনেকদিন অপেক্ষা করছিলেন পরবর্তী ছবির জন্য। অবশেষে মুক্তি পেয়েছে ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস ২’। অন্যদিকে ৯ বছর পর আবারো পর্দায় হাজির হচ্ছে পিক্সার অ্যানিমেশন স্টুডিওজ প্রযোজিত এবং ওয়াল্ট ডিজনি পিকচার্স পরিবেশিত ‘টয় স্টোরি’ সিরিজের চতুর্থ কিস্তি ‘টয় স্টোরি ৪’।

ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে ‘মেন ইন ব্ল্যাক: ইন্টারন্যাশনাল’ ছবিতে। ছবিটির পরিচালক এফ. গ্যারি গ্রে। আগের ছবিগুলোর মতো ‘এজেন্ট জে’ ও ‘এজেন্ট কে’ চরিত্রে থাকছেন না উইল স্মিথ এবং টনি লি জোনস।

এদের পরিবর্তে থাকছেন ক্রিস হেমসওয়ার্থ এবং টেসা থম্পসন। ‘টেকেন’ খ্যাত অভিনেতা লিয়াম নেসনকেও দেখা যাবে এ ছবিতে। তিনি থাকছেন মেন ইন ব্ল্যাক লন্ডন শাখার প্রধান হিসেবে। মহাজাগতিক বস্তুর উপর নির্ভর করে নির্মিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে সবচেয়ে হাস্যরসাত্মক ‘মেন ইন ব্ল্যাক’।

ইউনিভার্সেল পিকচার্স ও ইলুমিনেশন প্রযোজিত ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস ২’ ছবির পরিচালক ক্রিস রেনাড। এবারের পর্বে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। লুই সিকে আর মূল চরিত্রে নেই। লুই সিকে দ্বিতীয় পর্বে না থাকলেও ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস ২’ ছবিতে ম্যাক্স থাকছে মূল চরিত্রেই।

শুধু ৭৫ মিলিয়ন ডলারে বানানো ‘দ্য সিক্রেট লাইফ অব পেটস’ ছবিটি। বিশ্বব্যাপী ২০১৬ সালে আয় করেছিল ৮৭৫ মিলিয়ন ডলার। মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই এটি পকেটে তুলেছিল ১০৪ মিলিয়ন ডলার। ছবিটির দ্বিতীয় কিস্তিতেও যেন এ ব্যবসা রমরমা থাকে, হয়তো সে কারণেও এর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এতে যুক্ত করেছেন খ্যাতিমান অভিনেতা হ্যারিসন ফোর্ডকে।

টয় স্টোরি গল্পের মূল চরিত্র মানুষ রোবট কিংবা পশু-পাখি নয়, খেলনা। এবারের কিস্তিতে দেখা যাবে এক রোড ট্রিপে বনি তার খেলনা নিয়ে বের হয়। যেখানে উডির সঙ্গে দেখা হয় হারানো প্রেমিকা বো পিপের। এরপর কি হয়? উডি কি বনির সঙ্গে ফিরে আসে?  না-কি তার প্রেমিকার সঙ্গে থেকে যায়। এমন প্রশ্নের উত্তর নিয়েই ‘টয় স্টোরি ৪’।

‘টয় স্টোরি ৪’-এ ‘বো পিপ’র অনুসন্ধান করে ছবিটির গল্প সাজানো হয়েছে। ‘বো পিপ’ হচ্ছে বিখ্যাত চরিত্র ‘সেরিফ উডি’র প্রেমিকা। ‘বো পিপ’ টয় স্টোরিজ সিরিজের প্রথম দুটিতে সহ ভূমিকায় ছিলো। বরাবরের মত এবারো সেরিফ উডির ভয়েজ দিয়েছেন বিখ্যাত মার্কিন অভিনেতা টম হ্যাঙ্কস। একইসঙ্গে ড্যাফ্ট পাংকের ভয়েজ শিল্পীরা এতে কণ্ঠ দিয়েছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর