রাজধানীতে অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতার এক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

রাজধানীতে অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতার এক

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫১ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে বিদেশি পিস্তল, গুলি, মাদক ও চোরাই মালামালসহ একজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান বিভাগের ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ। তার নাম- মো. সোহান। 

রোববার সকালে ডিএমপির গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে গুলশান বিভাগের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী জানান, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পল্লবী এলাকার শহীদবাগ কালাপানি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যে শোয়ার ঘর থেকে বিভিন্ন চোরাই মালামাল উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার করা মালামালের বিষয়ে ডিসি বলেন, ১টি ৭ দশমিক (পয়েন্ট) ৬২ বিদেশি পিস্তল, ১টি পিস্তলের ম্যাগাজিন, ১ রাউন্ড পিস্তলের গুলি, ৩০০ গ্রাম গাঁজা, ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা, একটি স্টেইনলেস স্টিলের চাকু, একটি স্টেইনলেস স্টিলের খুর, ১১টি মোবাইল, ১টি কোডাক ও ১টি ক্যানন ক্যমেরা, ২টি স্ক্রু ড্রাইভার, লোহার তৈরি ৬টি র‌্যাথ, স্টেইনলেস স্টিলের রেঞ্জ ২টি, ঘড়ি ৫টি, ছোট স্ক্রু ড্রাইভার ৪টি, স্টিলের সন ৪টি, তালার চাবি ২২টি, নাইফ ২টি, ১টি ম্যাগনিফাইং গ্লাস, ১টি ট্যাব, মানিব্যাগ ৩টি, ১টি ফেবিকল সুপার গ্লু, বিভিন্ন ধরনের ইমিটেশন চুড়ি ৫টি, ইমিটেশন আংটি ৫টি, ইমিটেশন গলার চেইন ৬টি, ইমিটেশন গলার চিক ১টি, পাথর যুক্ত কানের দুল ২টি, ইমিটেশনের কানের দুল ৪ জোড়া, ইমিটেশনের ব্রেসলেট ২টি, ১ জোড়া রূপার পায়ের নুপুর (যার ওজন ১৫ আনা), ১টি কালো রংয়ের রিচার্জেবল টর্চ লাইট ও ১টি লাল রংয়ের বড় সাইজের হাতলযুক্ত ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি জানায়, সোহানের চুরির কৌশল ছিল অভিনব। সোহান বিভিন্ন চ্যানেলে নিয়মিত ক্রাইমপেট্রোল দেখার মাধ্যমে চুরির কাজে লিপ্ত হয়। সময় হিসেবে দিনের বেলাকে সে বেছে নিতো। প্রথমে তার সহযোগী আসামিদের নিয়ে চুরি করলেও পরবর্তী সময়ে সে একাই চুরি করে। যেসব বাসায় লাইট ও ফ্যান বন্ধ থাকে এবং যে বাসায় সিকিউরিটি গার্ড থাকে না সে সব বাসায় চুরি করার জন্য টার্গেট করে সে। পরবর্তীতে টার্গেটকৃত বাসায় রেঞ্জ, স্ক্রু ড্রাইভার, হেসকো ব্লেড, টেস্টার, ডুপ্লিকেট চাবিসহ ভেতরে ঢুকে। পরে তালা খুলে বা ভেঙে ও বাসায় ডোরলক থাকলে দরজায় পিঠ লাগিয়ে সজোরে ধাক্কা দিয়ে দরজা খুলে চুরি করে। তার টার্গেটকৃত বাসায় দারোয়ান থাকলে দারোয়ানের গতিবিধি লক্ষ্য করে সুযোগমত বাসায় প্রবেশ করে।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে টার মধ্যে ক্যান্টনমেন্ট থানার মানিকদির মো. আমিনুল ইসলামের বাসার দরজার তালা ভেঙে বাসায় চুরি হয়। তার বাসা থেকে ৫ লাখ ৬৫ হাজার টাকা, ১ জোড়া স্বর্ণের হাতের বালা, ২টি স্বর্ণের ব্রেসলেট, ৩টি স্বর্ণের গলার চেইন, ২টি স্বর্ণের গলার হার, ৩ জোড়া স্বর্ণের কানের দুল ও ৮টি স্বর্ণের হাতের আংটি (আনুমানিক ওজন ১০ ভরি) চুরি হয়। এ ঘটনায় রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি নিয়মিত মামলা ও পল্লবী থানায় ৩টি মামলা হয়। এছাড়া গ্রেফতারকৃত সোহানের বিরুদ্ধে পূর্বে পল্লবী থানাসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এমআরকে