রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে তীব্র যানজট, চরম ভোগান্তি

ঢাকা, শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৭,   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে তীব্র যানজট, চরম ভোগান্তি

ডেইলি বাংলাদেশ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ

 প্রকাশিত: ১১:৫২ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১৫:০৯ ৫ মার্চ ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রংপুর থেকে রাত ৯টার বাস গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পৌঁছেছে সকাল ৭টায়, সেই বাস ৮টায়ও আর এগোতে পারেনি। রাত আড়াইটার বাসও এসে থেমে আছে গোবিন্দগঞ্জে। ঢাকাগামী যানবাহনগুলোকে যানজটে পড়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে রাস্তায়। আর এতে বিড়ম্বনায় পড়েছেন রাজধানীগামী সাধারণ মানুষ। একদিন আগে টাঙ্গাইলে দুর্ঘটনা, বগুড়ার একটি সেতুতে যান চলাচলে বিঘ্ন, ঈদের পরে রাস্তায় যানবাহনের বাড়তি চাপ-সব মিলে যান চলাচলে ব্যহত হচ্ছে চরমভাবে। ঈদের আগে সরকার এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তৎপরতা থাকলেও ঈদের পর ঢাকায় ফেরার সময় গুরুত্ব দেয়া হয় না বলে অভিযোগ যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টদের।

বৃহস্পতিবার দিন ও রাতের বাসগুলো পূর্ব নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী ছাড়তে না পারায় আজ শুক্রবার সকালেও একই অবস্থা বিরাজ করছে। প্রতিটি গাড়ি তিন থেকে সাত ঘণ্টা পর্যন্ত দেরি করে ছেড়েও রাস্তায় যানজটের মুখে পড়েছে। এতে নাভিশ্বাস উঠেছে রাজধানীগামী মানুষের। রাত ৯টায় রংপুর থেকে হানিফ পরিবহনের বাসে উঠেছেন ঢাকার বেসরকারি চাকরিজীবী নাজমুল হোসেন।

তিনি জানান, প্রায় ১২ ঘণ্টায় ৬৫ কিলোমিটারে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ এসে থেমেছে বাস।

এরপর আর এগোচ্ছে না। চার ঘণ্টা দেরিতে রংপুর থেকে ছাড়া এনা পরিবহনের বাসে ঢাকা যাচ্ছেন বুলবুল। সকাল ৮টার দিকে তিনি জানান, রাত আড়াইটা থেকে গোবিন্দগঞ্জ এসে আর সামনে যাচ্ছে না। ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলগামী মানুষ এভাবে যাত্রাপথের বিড়ম্বনায় পড়েছেন। বাসের দেরির কারণে বিড়ম্বনায় পড়েছেন যাত্রীরা। বিশেষ করে নারী এবং শিশুদের বিড়ম্বনা হচ্ছে বেশি। দীর্ঘসময় খাবার না পেয়ে অনেক শিশু কান্নাকাটি করছে। রয়েছে টয়লেট সংকট।

রাত ১১টার ডিপজল পরিবহনের বাস অাড়াইটায় ছেড়ে গোবিন্দগঞ্জ কাটাখালী বালুয়াঘা এলাকায় এসে থেমেছে। সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত বাস ছাড়েনি। ঢাকাগামী এনা পরিবহনের চালক কামাল হোসেন বলেন, রাস্তায় বিভিন্ন স্থানে সমস্যার কারণে যানজটে পড়তে হচ্ছে। এর মধ্যে বগুড়ায় সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া, গোবিন্দগঞ্জে চাপা রাস্তা এবং সব মিলে রাস্তায় যানবাহনের অতিরিক্ত চাপের কারণে যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ