Alexa যে ভাবে কাজ করবেন কানের বিচারকরা; জানালেন ইনারিতু

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ২ ১৪২৬,   ১৭ সফর ১৪৪১

Akash

যে ভাবে কাজ করবেন কানের বিচারকরা; জানালেন ইনারিতু

বিনোদন ডেস্ক- ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২০ ১৬ মে ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সেলুলয়েডের তীর্থস্থান কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭২তম আসর শুরু হয়েছে গেল মঙ্গলবার। তামাম দুনিয়ার চলচ্চিত্রানুরাগীরা সারা বছর এই উৎসবের দিকে তাকিয়ে থাকে। দক্ষিণ ফরাসি উপকূলের সাগরপাড়ের শহর কানে এখন উৎসবকে ঘীরে চলচ্চিত্রানুরাগীদের কোলাহল। রূপালি পর্দায় গল্পের বৈচিত্র্য আর লালগালিচার জৌলুসের সম্মিলন চলছে ফরাসি উপকূলে। এই উৎসবে বিচারকার কিভাবে কাজ করবেন তা জানিয়েছেন বিচারকদের সভাপতি আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারিতু।

উৎসবের শুরুর দিন মঙ্গলবার দুপুর কানের মূল ভবন অর্থাৎ পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের তৃতীয় তলার সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন চারবার  অস্কারজয়ী আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারিতু। এবার কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭২তম আসরের বিচারকদের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। প্রতিযোগিতা বিভাগের কোন ছবি স্বর্ণ পাম জিতবে সেই গুরুদায়িত্ব সামলাবেন ৫৫ বছর বয়সী এই নির্মাতা।

বিষয়টি নিয়ে তিনি বলেন, আগে কখনো কোনো উৎসবের বিচারকদের সভাপতি ছিলাম না। আমার পরিবারেরও কেউ ছিল না! জানি না কীভাবে কাজটা করবো। সেই উত্তর আপাতত নেই। এটুকু বলতে পারি, এটি আবেগপ্রবণ কাজ। ব্যক্তিগতভাবে আমি বিচার পছন্দ করি না। এখানে আবেগ সবার ওপরে। কান এমন একটি উৎসব যা ক্যারিয়ারের শুরু থেকে আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। জুরিদের সভাপতি হওয়ার মতো অসাধারণ সম্মান পেয়ে আমি ধন্য ও রোমাঞ্চিত। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের চলচ্চিত্র নির্মাতাদের নতুন ও চমৎকার কাজ দেখার সুযোগ পাওয়া সত্যিকারের আনন্দ ও একইসঙ্গে দায়িত্ব। আমরা আবেগ ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজটা করতে চাই। আমরা শিখবো ও নিজেদের রূপান্তর করবো।

সংবাদ সম্মেলনে আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারিতুর সঙ্গে উপস্থিত হন অন্য বিচারকরা। প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারক প্যানেলে ইনারিতুর নেতৃত্বে থাকছেন চারজন পুরুষ ও চারজন নারী। নারীরা হলেন আমেরিকান অভিনেত্রী এল ফ্যানিং, সেনেগালের অভিনেত্রী-পরিচালক মায়মুনা এনদাই, মার্কিন নির্মাতা কেলি রাইকার্ড, ইতালিয়ান নারী নির্মাতা অ্যালিস রোরওয়াচার, গ্রিসের পরিচালক ইওর্গেস লানতিমোস, পোল্যান্ডের পরিচালক পাওয়েল পাওলিকস্কি, ফরাসি নির্মাতা রবিন ক্যাম্পিলো (১২০ বিপিএম-বিটস পার মিনিট) ও ফরাসি গ্রাফিক ঔপন্যাসিক-নির্মাতা এনকি বিলাল।

এবারের আসরে পাম দ’রের দৌড়ে আছেন কয়েকজন সিনেমা-গুরু। যেমন দারদেন ভ্রাতৃদ্বয়, কেন লোচ, পেদ্রো আলমোদোভার, কোয়েন্টিন টারান্টিনো। তাদের ছবিকে বিচার করা কতটা সহজ হবে? এমন প্রশ্নের জবাবে ইনারিতুর বলেন, কে পরিচালনা করেছেন তা আমাদের কাছে মুখ্য হবে না। ছবিকে ছবি হিসেবে দেখবো। সেটা পুরুষ  নাকি নারী, নবীন নাকি প্রবীণ বানিয়েছেন সেসবে মন দেবো না। ছবি মানসম্পন্ন কিনা তা গুরুত্বপূর্ণ। কোনো প্রভাবই কাজ করবে না আমাদের ওপর। আমার প্যানেলের বিচারকরা একে অপরের সঙ্গে নিজেদের উপলব্ধি ও আবেগ ভাগাভাগি করবো। কী আমাদের মনকে নাড়া দিলো ও কী শিখলাম তা নিয়ে আড্ডা দেবো। 

মার্কিন নির্মাতা জিম জারমাশের ‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’ ছবির প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে পর্দা উঠেছে এবারের কান উৎসবের। ১৪ মে শুরু হওয়া এই আয়োজন চলবে আগামী ২৫ মে পর্যন্ত।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ