যে পানিতে গোসল করলেই দাঁড়িয়ে যাবে চুল!

.ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১২ ১৪২৬,   ১৯ শা'বান ১৪৪০

যে পানিতে গোসল করলেই দাঁড়িয়ে যাবে চুল!

 প্রকাশিত: ০৭:৫৬ ২৮ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ১৮:৪৫ ৪ নভেম্বর ২০১৮

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

পানির পরশ পেলে এলোমেলো চুলও ভাঁজ হয়ে পড়ে। পুকুরে কিংবা নদীতে গোসল করার সময় আমাদের চুল এমনিতেই ভাঁজ হয়ে পড়ে। কিন্তু এ কেমন পানি, যেখানে ডুব দিলেই সব চুল খাড়া হয়ে যায়! শুধু তাই না, মাথায় বিছিয়ে থাকবে সাদা তুলার মতো বরফ।

কানাডার ইওকনে এমন জলাধারের দেখা মিলিছে। যে ‘সুইমিং পুলটির’ পানির তাপমাত্রা মাইনাস ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ইওকনে একশোর বেশি এমন উষ্ণপ্রস্রবণ রয়েছে যেখানে বিভিন্ন তাপমাত্রার পানিতে গোসল করতে পারেন। ‘তাকহিনি’ তেমনই একটি প্রাকৃতিক উষ্ণ প্রস্রবণ।

জানা যায়, এই উষ্ণ প্রস্রবণে একসময় কানাডার ‘ফার্স্ট নেশন’-এর অধিবাসীরা স্নান করতেন। পরবর্তীকালে এই পুল ব্যবসায়িক হয়ে ওঠে। ১৯৪০ সালে এই পুলটিকে কাঠ এবং ক্যানভাস দিয়ে নতুন করে তৈরি করা হয়। আলাস্কা হাইওয়ে তৈরির সময় এখানে গোসল করতেন মার্কিন সেনা কর্মীরা। ১৯৫০ সাল থেকে এই পুলটির বিপুল বাণিজ্যকরণ হয়।

এখন ইওকন শহরে তাকহিনি উষ্ণ প্রস্রবণ-সহ আরো অনেক পুল রয়েছে যেখানে প্রতি বছর গোসল করতে আসেন বহু পর্যটক।

শীতকালে এই পুলে নামলেই মাত্র ৬০ সেকেন্ডে মাথার চুল বরফে ঢেকে গিয়ে দাঁড়িয়ে যাবে। এই সময় তাপমাত্রা থাকে মাইনাস ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শীতের মৌসুমে এই উষ্ণ প্রস্রবণে গোসল করার জন্য বিভিন্ন প্রতিযোগিতা চলে। এই প্রতিযোগিতায় জয়ীকে ১৫০ ডলার পুরস্কার দেয়া হয়।

তবে, গ্রীষ্ম এবং শরতের সময় ‘তাকহিনি’ পুলের পানির তাপমাত্রা বাড়ে। ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মতো তাপামাত্রা থাকে এই প্রাকৃতিক উষ্ণ প্রস্রবণে। অর্থাৎ সারা বছরই গোসলের নেশায় ভিড় দেখা যায় পর্যটকদের।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ