যে খাবারগুলো এড়িয়ে গেলে স্থায়ীভাবে নিরাময় হবে পাইলস!
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=191476 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭,   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

যে খাবারগুলো এড়িয়ে গেলে স্থায়ীভাবে নিরাময় হবে পাইলস!

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:২৫ ২ জুলাই ২০২০  

পাইলস

পাইলস

আমাদের মধ্যে অনেকেই যন্ত্রণাদায়ক পাইলসের সমস্যায় ভুগে থাকেন। নানাভাবে এর থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার চেষ্টাও করেন। তবে জানেন কি, নিজেদের কিছু ভুলের কারণেই এর থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। আর সেটি হচ্ছে খাদ্যাভ্যাস ও অনিয়মিত জীবনযাত্রা।

পাইলস সাধারণত দুই প্রকার। প্রথমটি হলো এক্সটার্নাল পাইলস, যাকে ব্লাইন্ড পাইলসও বলে। দ্বিতীয়টি হলো ইন্টারনাল পাইলস, যাকে ব্লিডিং পাইলসও বলে। এই ইন্টার্নাল পাইলস খুবই বিপজ্জনক। কারণ এর থেকে প্রায়ই রক্তক্ষরণ হতে দেখা যায়। আর রক্তক্ষরণ দীর্ঘস্থায়ী হলে মলদ্বারে ক্যানসারও হতে পারে।

অনেকেই ভাবেন, এই রোগটি বংশগত। তবে সবক্ষেত্রে এটা নাও হতে পারে। কারণ মলত্যাগের প্রক্রিয়া যার মসৃণ হবে, সে কখনো এই সমস্যায় ভুগবে না। তবে যদি মলত্যাগের প্রক্রিয়া মসৃণ না হয়, তবে দেখা দিতে পারে এ ধরনের সমস্যা। ফলে মলত্যাগের সময় রক্তক্ষরণ হতে পারে, একই সঙ্গে অসহ্য ব্যথাও হয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তনের মাধ্যমে এই রোগকে অনায়াসে দূর করা যায়। কারণ খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন হলেই দূর হবে কোষ্ঠকাঠিন্য, আর কোষ্ঠকাঠিন্যকে নিরাময় করা গেলেই দূর হবে পাইলস বা অর্শ। আপনি যদি এই রোগে ভোগেন, তবে সুস্থ থাকতে এখনই পরিবর্তন করুন খাদ্যাভ্যাস এবং পরামর্শ নিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পাইলস এড়াতে কী ধরনের খাবার এড়িয়ে চলবেন- 

তেলেভাজা খাবার

বেশিরভাগ মানুষই প্যাকেটজাত খাবার বা তেলেভাজা জাতীয় খাবার বেশি পছন্দ করেন। চিকিৎসকদের মতে, আপনি যদি পাইলসের রোগী হন, তবে আপনার উচিত ভাজা খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকা। কারণ এগুলো হজম ক্ষমতাকে দুর্বল করে তোলে এবং পাইলসের সমস্যাকেও বৃদ্ধি করে।

মাংস

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, আপনি যদি কোষ্ঠকাঠিন্যতে ভোগেন এবং অর্শের ফলে রক্তক্ষরণ হয়, তবে কিছু সময়ের জন্য মাংস খাওয়া বন্ধ করুন। বিশেষ করে রেড মিট খাওয়া ছেড়ে দিন, পাশাপাশি দোকান থেকে কেনা মাংসজাতীয় বিভিন্ন খাবার এড়িয়ে চলুন।

মশলাযুক্ত খাবার

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, পাইলসে আক্রান্ত হলে মশলাযুক্ত খাবার খাওয়া এড়িয়ে চলতে হবে। অতিরিক্ত মশলাযুক্ত খাবার আপনার হজম ক্ষমতাকে দুর্বল করে দিতে পারে, পাশাপাশি অর্শের ব্যথাও বৃদ্ধি করে।

কফি ও চা

আপনার পাইলস থাকলে কফি ও চা জাতীয় পানীয় এড়িয়ে চলুন। এগুলো পাইলসের সমস্যাকে আরো বৃদ্ধি করে। সুস্থ থাকতে পান করতে পারেন গ্রিন টি।

বেকারি জিনিসপত্র

প্রায় সব বেকারি আইটেম অপরিশোধিত ময়দা ও চিনি দিয়ে তৈরি হয়। যদিও এগুলো সহজেই হজম করা যায়, কিন্তু এগুলো পাচনতন্ত্রের পক্ষে ভালো খাবার নয়। কারণ বেকারির সমস্ত জিনিসে ফাইবার একেবারেই থাকে না, যা কোষ্ঠকাঠিন্যকে বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। আর কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দিলে পাইলসের সমস্যা বাড়তে পারে।

সূত্র: বোল্ডস্কাই 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ