Alexa যেসব কারণে পিঠে ব্যাথা হয়…   

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৮ ১৪২৬,   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

যেসব কারণে পিঠে ব্যাথা হয়…   

রোকসানা আক্তার ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২১ ১৯ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আধুনিক যুগে মানুষ অনেকটা প্রযুক্তির উপর র্নিভরশীল। বেশিরভাগ কাজই চেয়ার-টেবিল কেন্দ্রিক। দীর্ঘসময় চেয়ারে বসে থাকার ফলে পিঠে ব্যথা যেন একটি ব্যাধির আকার ধারন করে। এটি অসহ্য যন্ত্রণাদায়ক বিষয়। শুধু বয়স হলেই যে এমন হয়, তা নয়। নানা কারণে এ ব্যথা হতে পারে। যেমন:

১. দীর্ঘক্ষণ এক অবস্থায় কম্পিউটারে কাজ করলে

২. দীর্ঘসময় বালিশ ছাড়া কাত হয়ে ঘুমালে

৩. কাঁধের জোড়া একবার বা অধিকবার স্থানচ্যুতি হলে

৪. কলার বোন ভাঙলে, ছোট হয়ে জোড়া লাগলে বা স্থানচ্যুতি হলে

৫. ক্যালসিয়াম কমে হাড় ভঙ্গুর (অসটিওপোরোসিস) হলে

৬. হাড়ের ইনফেকশন ও টিউমার

৭. পিত্তথলি, ফুসফুস এবং হৃদরোগের কারণে ও স্ক্যাপুলায় ব্যথা হলে রেফার্ড পেইন বলে।

৮. ভারী জিনিস বেশিক্ষণ টানাটানি করলে পিঠের ব্যথা হতে পারে

৯. অতিরিক্ত মানসিক চাপ ও দু:চিন্তা

১০. গর্ভাবস্থায় মেরুদণ্ডের নীচের দিকে, কোমর, পেলভিসের অংশে ব্যথা অনুভব হয়ে থাকে, যা ধীরে ধীরে পিঠের ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

প্রতিরোধের উপায়:
পিঠব্যথা প্রতিরোধ করতে হলে সর্বদা মেরুদণ্ডের আকৃতি স্বাভাবিক রাখতে হবে। এজন্য-  

১. অফিসে অনেকক্ষণ টানা বসে না থেকে মাঝে মাঝে উঠে, হাঁটাচলা করা। কাঠের অথবা প্লাস্টিকের চেয়ার ব্যবহার করা।

২. পিঠের ব্যথা খুব বেশি হলে প্রথম কাজ হলো পূর্ণ বিশ্রাম গ্রহণ করা। যে কাজ একেবারে না করলেই নয় এমন কাজ ছাড়া পূর্ণ বিশ্রাম নেয়া অন্তত দু’দিন।

৩. ব্যাথার স্থানে বরফ রেখে ৭ থেকে ৮ মিনিট ম্যাসাজ করা।

৪. পিঠে ব্যথার অন্যতম কারণ হলো মাংসপেশীর জড়তা। বিছানায় চিত হয়ে শুয়ে দুই হাঁটু বিছানা থেকে তুলে বুকের দিকে ভাঁজ করে হালকা চাপ প্রয়োগ করলে, আরাম পাওয়া যায়।

৫. ফোমের বা নরম বিছানা পরিহার করে সমতল এবং শক্ত বিছানায় শোবার অভ্যাস করা।

৬. কাজের সময় ব্যথা অনুভূত হলে নিজের সুন্দর স্মৃতিগুলো মনে করা, এতে ব্যথা কম টের পাওয়া যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ/জেএমএস