Alexa ময়মনসিংহে ছেলের পিটুনিতে শয্যাশায়ী বাবা

ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৮ ১৪২৬,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

ময়মনসিংহে ছেলের পিটুনিতে শয্যাশায়ী বাবা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫৮ ২১ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২০:৩২ ২১ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জমি লিখে না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বৃদ্ধ বাবাকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে তারই আপন ছেলে। ডান হাতে সেলাই নিয়ে শয্যাসায়ী ওই বৃদ্ধ বাবা ঘরবন্দি রয়েছেন। 

সোমবার ময়মনসিংহের নান্দাইলের লতিফপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ছেলের হুমকির মুখে আইনি সহায়তার জন্য বৃদ্ধ আবুদল জব্বার (৭০) ও তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৬৫) থানায় যেতে পারছেন না।

অন্যদিকে অভিযুক্ত ছেলে  তরিকুল ইসলাম বলেন, তার বাবা ছোট ভাইকে সব সম্পত্তি লিখে দেয়ার প্রতিবাদ করলে তাকে মারতে উদ্যত হয়ে। সে সময় পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। তিনি কোন ধরনের মারধর করেননি।

মা রোকেয়া বেগম বলেন, গত ছয়মাস আগে তার বড় ছেলে তরিকুল ইসলাম জমির অংশ লিখে দিতে হুমকি দেয়। দিতে না চাইলে তাকে ও স্বামীকে মারধর করে। এ ঘটনায় পুলিশ বাড়িতে এসেছিল। কিন্তু সন্তান তাদের কাছে ক্ষমা চাইলে বিষয়টি মিটমাট হয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, গ্রামের একটি মহল তার বড় ছেলে তরিকুলকে উসকে দিচ্ছে বাবার কাছ থেকে জমি লিখে নেয়ার জন্য। কিন্তু লিখে দিলে ওই স্বার্থান্বেষী মহলটির কাছে জমি বেহাত হতে পারে। এই আশঙ্কায় তার স্বামী ছেলেকে জমি লিখে দেননি। 

আবদুল জব্বার বলেন, সোমবার ছেলে তরিকুল ফের জমি লিখে দেয়ার জন্য চাপ দেয়। এতে তিনি কোন কথা না বলে বাড়ির ভেতর চলে যেতে চাইলে তরিকুল পেছন থেকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এ সময় তিনি প্রতিহত করতে চাইলে ডান হাতে আঘাত লেগে রক্ত বের হয়। 

ছোট ছেলে রফিকুল ইসলাম বলেন, সম্পত্তি বেহাত হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় তার নামে কিছু জমি লিখে দিয়েছেন। এই অবস্থায় তিনি (বাবা) যদি ফেরত চান সেই জমি ফেরত দিয়ে দেবেন। কিন্তু এ কারণে বড় ভাই তার বাবা-মায়ের সঙ্গে এ ধরনের আচরণ করতে পারেন না। কেউ এতে উসকানি দিচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে নান্দাইল থানার ওসি মনসুর আহাম্মাদ বলেন, ওই বৃদ্ধ-বৃদ্ধা আইনি সহায়তা চাননি। আইন সহায়তা করলে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর