Alexa মৃত ভাইয়ের জন্য দোয়া চাইলেন অপূর্ব 

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৮ ১৪২৬,   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

মৃত ভাইয়ের জন্য দোয়া চাইলেন অপূর্ব 

বিনোদন প্রতিবেদক- ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫০ ১৫ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর আদবর শেখেরটেক এলাকার একটি বাসা থেকে গেল বৃহস্পতিবার অভিনেতা অপূর্বর ছোট ভাই জাহেদুল ফারুক দ্বীপের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আদাবর শেখেরটেকের ৬নং রোডের নিজ বাসায় বসবাস করতেন দ্বীপ। ওই বাসার ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

দ্বীপের মরদেহ উদ্ধারের পর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না-তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। ময়না-তদন্ত শেষে ওই দিন রাতে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দ্বীপের মরদেহ দাফন করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করেছে, তিনি আত্মহত্যা করেছে। আর পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে দ্বীপ মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। ছোট ভাইকে হারিয়ে শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছেন অপূর্ব। জানালেন, ভাইয়ের সঙ্গে সর্বশেষ দেখা হয়েছিল রমজানে। ঈদের দিন কিংবা পরে আর দেখা করতে আসেনি। 

অপূর্ব বলেন, ১৩ জুন রাতে ফেসবুক লাইভে এসেছিল দ্বীপ। কিন্তু কিছু না বলে ক্যামেরার সামনে চুপ করে দাঁড়িয়ে ছিল। এরপর ক্যামেরা বন্ধ করে দেয়। মনে হয়, এর পরই ঘটনাটা ঘটেছে। শুনেছি, ওই রাতে সে অনেক ঘুমের ওষুধ খেয়েছিল। ওর মৃত্যুতে আমাদের পরিবারের সবাই শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েছে।

এদিকে, শনিবার ছোট ভাইয়ের জন্য দোয়া চেয়েছেন অপূর্ব। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক স্ট্যাটাসে অপূর্ব লেখেন, আমার ছোট ভাই জাহিদুল ফারুক দীপুর মৃত আত্মার জন্য সবাই দোয়া কবেন। আল্লাহ যেন তাকে শান্তিতে রাখেন।

অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বদের তিন ভাইয়ের মধ্যে দ্বীপ সবার ছোট ছিল। সবার বড় আব্বাস ফারুক স্বপন এবং মেজ জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। স্ত্রী ডলি ও সাড়ে চার বছর বয়সী ছেলে অংশকে নিয়ে আদবরের ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন দ্বীপ।

তিনি দীর্ঘদিন ধরেই সঙ্গীতের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। গানের পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন নাটক ও টেলিছবির আবহ সংগীত করতেন। অপূর্ব অভিনীত ফার্স্ট লাভ, ড্রিম গার্ল সহ আরো বেশ কিছু নাটকের আবহ সংগীত করেছেন তিনি। কিছুদিন আগেও দ্বীপের ‘ভালবাসি তোমায়’ শিরোনামের একটি গান প্রকাশ হয়।
 
ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ