মৃত্যুর কোলে মা-বাবাকে রেখে পরপারে শিশু রুশদি

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৭ ১৪২৬,   ০৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

মৃত্যুর কোলে মা-বাবাকে রেখে পরপারে শিশু রুশদি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:২৬ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৭:২৮ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

মৃত্যু শয্যায় থাকা মা-বাবার মাঝে মৃত রুশদি

মৃত্যু শয্যায় থাকা মা-বাবার মাঝে মৃত রুশদি

রাজধানীর ইস্কাটনের দিলু রোডের একটি বাসার গ্যারেজে আগুন লাগার ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দগ্ধ হন আরো তিনজন। দগ্ধ হয়ে মৃত্যু কোলে থাকা শহিদুল কিরমানি রনি ও জান্নাতুল ফেরদৌস দম্পতির ছেলে রশিদ মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেন বলে নিশ্চিত করেন তারই দাদা একেএম শহীদুল্লাহ।

নাতি রুশদির মরদেহ শনাক্ত করে দাদা একেএম শহীদুল্লাহ বলেন, ভবনে আর কোনো বাড়তি শিশু ছিল না। এটাই রুশদির মরদেহ।

নরসিংদির শিবপুরের বাসিন্দা একেএম শহীদুল্লাহ বলেন, বিআইভিপি নামের একটি প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ও আইসিএমএ নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রভাষক ছেলে রনি, তার স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে ওই বাসার তিনতলায় থাকতেন। তার স্ত্রী জান্নাত বেক্সিমকো ফার্মাসিউক্যাল লিমিটেডের হিসাবরক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

শেখ হাসিনা ন্যাশনাল বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, দগ্ধদের মধ্যে জান্নাতের শরীরের ৯৫ শতাংশ ও রনির ৪৩ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাদের উভয়ের শ্বাসনালী দগ্ধ হয়েছে। তারা এখন আইসিইউতে রয়েছেন। 
এছাড়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে সুমাইয়া আক্তার, তার ছেলে মাহাদী, নয় মাসের শিশু মাহমুদুল হাসান ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে ওই ঘটনায় ভবনের নিচে থাকা মৃত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম আব্দুল কাদের লিটন। তিনি লক্ষ্মীপুর সদরের পশ্চিম নন্দনপুর গ্রামের মোহাম্মদ উল্লাহর ছেলে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ