মুজিববর্ষে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=170483 LIMIT 1

ঢাকা, শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০,   ভাদ্র ১ ১৪২৭,   ২৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

মুজিববর্ষে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ

শাহাদাত হোসেন রাকিব ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৯ ২১ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৭:৪৫ ২৮ জুলাই ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি ঘরে জ্বলবে বিদ্যুতের আলো। এ লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। এছাড়া মুজিববর্ষকে বিদ্যুৎ বিভাগ ‘সেবাবর্ষ’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। মুজিববর্ষে প্রতিদিন এক ঘণ্টা বেশি কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া দক্ষ জনসম্পদ গড়ার উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ।

বিদ্যুৎ বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে দেশের ৯৫ শতাংশ জনগোষ্ঠী বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আছে। আর সারাদেশে শতভাগ ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ নিশ্চিতে চলছে বিশাল কর্মযজ্ঞ। বিদ্যুৎ বিভাগ ও পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি) কর্তৃপক্ষ প্রত্যন্ত গ্রামগুলো আলোকিত করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

জানা গেছে, ২০১৬ সালে নেয়া হয় ক্রাশ প্রোগ্রাম ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ প্রকল্প। এ প্রকল্পের আওতায় মুজিববর্ষের মধ্যেই ঘরে ঘরে পৌঁছে যাবে বিদ্যুৎ। লক্ষ্যমাত্রা পূরণে কাজ করছে বিদ্যুৎ বিভাগ। প্রতিনিয়তই বাড়ছে বিদ্যুতের সুবিধাপ্রাপ্ত জনগোষ্ঠী ও গ্রাহকের সংখ্যা।

এরইমধ্যে দেশের ৪০২ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন সম্পন্ন হয়েছে। ৬০ উপজেলায় গড়ে ৮৫ শতাংশ বিদ্যুতায়নের কাজ শেষ। এসব উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের কাজ শেষ হওয়ার পরই সারাদেশে শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা দেয়া হবে।

এর আগে ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পরই দেশের প্রতিটি মানুষের দুয়ারে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিল আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার। টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসীন আওয়ামী লীগ সরকার সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে লাগাতার কাজ করে যাচ্ছে। এর ফলে মুজিববর্ষেই প্রতিটি ঘরে পৌঁছে যাবে বিদ্যুৎ।

এদিকে, মুজিববর্ষে প্রতিদিন এক ঘণ্টা বেশি কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। এছাড়া সারাদেশে বৈদ্যুতিক কর্মপেশায় দক্ষ জনবল তৈরির লক্ষ্যে ১৪ হাজার মানুষকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, মুজিববর্ষকে বিদ্যুৎ বিভাগ সেবাবর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। চলতি বছরের জুনের মধ্যে গ্রিড এলাকায় এবং ডিসেম্বরের মধ্যে অফগ্রিড এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হবে।

তিনি আরো বলেন, বিদ্যুতের কারণে বর্তমানে গ্রামের মানুষের জীবনযাত্রা উন্নত হয়েছে। গ্রামের মানুষ এখন ফ্রিজ এবং টেলিভিশন ব্যবহার করে। অর্থনৈতিক উন্নতি সার্কেল বিদ্যুতের উপর নির্ভর করে। বিদ্যুৎ ব্যবস্থা উন্নত হলে চিকিৎসা ব্যবস্থা, শিক্ষা ব্যবস্থা এবং মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নত হবে।

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বলেন, মানুষের ঘরে ঘরে যে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাচ্ছে এটা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নের কারণেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএইচআর/এস//এইচএন