Alexa মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন

ঢাকা, বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬,   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫৮ ১৮ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৯:৫৯ ১৮ জানুয়ারি ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী কুতুবখালী এলাকার একটি বাড়িতে মালা (১০) নামের এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রাজিব নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাজিবের স্ত্রী দিলারা (ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নার্স) পলাতক রয়েছেন। 

শুক্রবার রাত ৩টায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহকর্মী পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলার হাজিরা গ্রামের রমিজ মিয়ার মেয়ে।

শিশুটি জানায়, দুই বছর ধরে বাসায় কাজ করে সে। কাজে ভুল হলে বিভিন্ন সময় নার্স দিলারা তাকে মারধর করতো। ১০/১২ দিন আগে তাদের বাসা থেকে একটি দেশি মুরগি হারিয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খুঁজেও মুরগিটা পাওয়া যাচ্ছিল না। মালা মুরগিটি ছেড়ে দিয়েছে ভেবে তাকে মারধর করে।

এরপর গত ১০ জানুয়ারি রাতে নার্স দিলারা তার মুখে হাসপাতালের রোগীদের ব্যবহৃত স্কচটেপ লাগিয়ে গরম খুন্তি দিয়ে তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ছ্যাঁকা দেয় ও মারধর করে। শিশুটি নির্যাতন থেকে বাঁচতে মিথ্যা অভিযোগের দায় স্বীকার করে। পরে তাকে ছেড়ে দিলেও নির্যাতনের কথা কাউকে বলতে নিষেধ করে। এরপর সে ওই বাসায়ই ছিল। তাকে কোথাও বের হতে দেয়নি। 

শুক্রবার সকালে নার্স দিলারা তাকে দোকান থেকে পান আনতে পাঠালে সে পালিয়ে যাত্রাবাড়ীর ধনিয়া এলাকায় এক আত্মীয়র বাসায় যায়। পরে তারাই পুলিশকে খবর দেয়। 

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় শিশুটির খালা সুমা বাদি হয়ে শুক্রবার রাতে একটি মামলা দায়ের করেছে। গৃহকর্তা রাজিবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গৃহকর্ত্রী দিলারাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ঢাকা মেডিকেল বার্ন ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান ডা. বিধান সরকার বলেন, হাসপাতালের পরিচালক বিষয়টি পর্যালোচনা করছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসসি/আরএইচ