মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির ওপর দিয়ে বিদ্যুতের তার, ঝুঁকিতে পরিবার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৬ ১৪২৬,   ১৫ শা'বান ১৪৪১

Akash

মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির ওপর দিয়ে বিদ্যুতের তার, ঝুঁকিতে পরিবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:০৩ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তার। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তার। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির ওপর দিয়ে বিদ্যুতের তার যাওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে ওই পরিবার। ঝুঁকিপূর্ণ ওই তার সরিয়ে নিতে প্রায় দুই বছর আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেও কোনো ফল পাচ্ছেন না তিনি। 

মুক্তিযোদ্ধা খুরশেদ আলম জেলার সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউপির ছোট শাহপুর এলাকার চান মিয়ার ছেলে। বর্তমানে তার পরিবার ঝুঁকির মধ্যে দিন কাটাচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বছর আড়াই আগে মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলমের বাড়ির ওপর দিয়ে বিদ্যুতের তার নেয়া হয়। ওই সময়ে অভিযোগ করলে বলা হয়, এতে কোনো সমস্যা হবে না। বর্তমানে ওই তার থেকে আশেপাশের দুইটি বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে।

খোরশেদ আলম জানান, ওই বিদ্যুতের তার বাড়ির দালান ঘেঁষে যাওয়া গাছে লেগে প্রায়ই আগুন লাগে। বিষয়টি পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলেও তারা কর্ণপাত করেনি। ২০১৮ সালের ৪ মার্চ এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুতের জিএম বরাবর লিখিত অভিযোগ করে তার সরানোর আবেদন করেন তিনি। 

তিনি আরো জানান, এছাড়া বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় এমপি র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বরাবর লিখিত আবেদন করা হয়। সম্প্রতি পল্লী বিদ্যুৎ থেকে জানানো হয়, খুঁটির তার সরিয়ে নিতে আমাকে টাকা দিতে হবে। 

তিনি বলেন, বাড়িটি এতটা ঝুঁকির মধ্যে পড়বে তার নেয়ার সময় তা বুঝতে পারিনি। গাছের সঙ্গে তার লেগে প্রায়ই আগুন জ্বলে উঠে। এতে বাড়ির সবাই আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। আমার জায়গা দিয়ে তার গেলো আর সরানোর জন্য আমাকে কেন টাকা দিতে হবে, আমি বুঝতে পারছি না। 

এদিকে এ প্রসঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পল্লী বিদ্যুতের জিএম মো. শাহজাহান তালুকদার  বলেন, যার জায়গা দিয়েই তার যাক না কেন, কারো প্রয়োজন হলে তাকেই নির্ধারিত হারে ফি দিয়ে সরাতে হবে। এটাই নিয়ম।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর