মীরসরাইয়ে অচেতন করে দুর্ধর্ষ চুরি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৬,   ১৭ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

মীরসরাইয়ে অচেতন করে দুর্ধর্ষ চুরি

মীরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০১ ১৬ মে ২০১৯   আপডেট: ১৪:০২ ১৬ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে বুধবার রাতে খাবারের সঙ্গে চেতনা নাশক ওষুধ মিশিয়ে পরিবারের সবাইকে অচেতন করে এক দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে।  

জোরারগঞ্জের হিঙ্গুলী ইউপির ৮ নং ওয়ার্ডের পূর্ব হিঙ্গুলী গ্রামের রহমত আলী মাদবার বাড়ীর কামাল উদ্দিনের পরিবারে এ ঘটনা ঘটে। 

পরিবারের সদস্য কামাল উদ্দিন জানান, রাতে প্রায় ১১টার সময় সবাই খাবার খেয়ে ঘুমাতে যায়। এরই মধ্যে তার ছেলে শিহাব বলে তা মাথা ঘুরছে বিষয়টি তার স্ত্রীকে দেখার জন্য বল্লে স্ত্রী ফেরদৌসী জাহানও জানান তারও মাথা ঘুরছে। পরে সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। এ সুযোগে তাদের পরিবারের ১০ সদস্যকে অচেতন করে চোরের দল ঘরের চারটি আলমারি খুলে নগদ সাড়ে তিন লাখ টাকা ও ২০-২২ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। 

চোরেরা যাওয়ার সময় বাড়ির নারীদের গলায় থাকা চেইনগুলোও টেনে নিয়ে যায়। মা রুপিয়া খাতুনের গলার চেইন নেয়ার সময় তিনি টের পেয়ে চিৎকার করলে কামাল উঠে এসে বিষয়টি জানতে পারে। তিনি স্ত্রীকে ডেকে তুললে তার গলার চেনটিও পাওয়া যায়নি। 

পরে পরিবারের সবাইকে ডাকা ডাকি করলে কয়েকজন উঠতে পারলেও বাকীরা ঘুমে অচেতন থাকে। 

কামাল আরো জানান, রান্না ঘরটি মুল ঘরের সঙ্গে থেকে একটু আলাদা। ধারণা করা যায় সুযোগ বুঝে চোর খাবারে চেতনা নাশক ওষুধ দিয়েছে। কেউ হয়তো ঘরে ঢুকে কোথাও লুকিয়ে ছিলো। সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়ে তারা চুরি করে পালিয়ে যায়। পরিবারের পাঁচ সদস্যকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জোরারগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মোজাম্মেল হক জানান,  চুরির বিষয়টি আমি জানি না। আপনার মাধ্যমে জানতে পারলাম। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

Best Electronics