‘মিন্নি-ছেলের বিয়ের মিষ্টি বিতরণ করেন নয়ন বন্ডের মা’

ঢাকা, শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭,   ১২ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

‘মিন্নি-ছেলের বিয়ের মিষ্টি বিতরণ করেন নয়ন বন্ডের মা’

বরগুনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৪ ৩০ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২০:০৯ ৩০ জানুয়ারি ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় দুটি আদালতে আরো পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে তাদের জেরা করা হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামানের আদালতে মাকসুদা বেগম, সাইফুল ইসলাম মুন্না ও রাইয়ানুল ইসলাম শাওন সাক্ষ্য দেন। একই সময় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমানের আদালতে সাক্ষ্য দেন সানজিদ হোসেন ও আজিজুর রহমান রণি। পরে তাদের জেরা করা হয়। এ নিয়ে ১০ জনের সাক্ষ্য ও জেরা করা শেষ হয়েছে। 

এসব তথ্য নিশ্চিত করেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর ভুবন চন্দ্র হাওলাদার। তিনি বলেন, জেলা ও দায়রা আদালতে ৩৪ এবং নারী-শিশু আদালতে ১৭ জনের সাক্ষ্য ও জেরা শেষ হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মিন্নিসহ নয় আসামি ও নারী- শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে জামিনে থাকা পাঁচ আসামিসহ ১৪ জন উপস্থিত ছিলেন।

আদালতে সাক্ষ্য দেয়া শেষে মাকসুদা বেগম বলেন, আমরা নয়ন বন্ডের বাসায় ভাড়া থাকি। ২০১৮ সালের ১৫ অক্টোবর বিকেলে নয়ন বন্ড ও মিন্নির বিয়ে হয়। সেই বিয়ের মিষ্টি নিজের হাতে সবার মাঝে বিতরণ করেন নয়ন বন্ডের মা শাহিদা বেগম। এছাড়া ওই সময় যা দেখেছি, তাই আদালতে বলেছি।

নয়ন বন্ডের বিয়ের স্বাক্ষী সাইফুল ইসলাম মুন্না ও রাইয়ানুল ইসলাম শাওন বলেন, নয়ন বন্ডের সহপাঠী হিসেবে ২০১৮ সালের ১৫ অক্টোবর বিয়ের কাবিননামায় আমরা স্বাক্ষর করি।

আসামিপক্ষে আইনজীবী সোহরাফ হোসেন মামুন বলেন, জেরায় আসামিরা হত্যার সঙ্গে সম্পৃক্তের সত্যতা পাওয়া যায়নি।

আসামি মিন্নির পক্ষের আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, সাক্ষ্য দেয়া সবাই রিফাত শরীর হত্যার সঙ্গে মিন্নির সম্পৃক্ততার কথা বলেননি। এছাড়া কাবিননামা চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ