মিনিটেই কোমর ও পিঠব্যথা দূর করার সহজ তিন কৌশল! 
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=186700 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

মিনিটেই কোমর ও পিঠব্যথা দূর করার সহজ তিন কৌশল! 

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৬ ৯ জুন ২০২০  

কোমর ও পিঠব্যথা দূর করার কৌশল

কোমর ও পিঠব্যথা দূর করার কৌশল

বয়স বৃদ্ধি কিংবা সারাদিন বসে কাজ করার কারণে অনেকেরই কোমর ও পিঠ ব্যথার সমস্যা হয়। যা খুবই যন্ত্রণাদায়ক। দেখা গেছে বিশ্বব্যাপী প্রায় ৯০ শতাংশ বয়স্ক ব্যক্তিদের দুর্বল করে দেয়ার একটি প্রধান কারণ হচ্ছে পিঠ বা কোমর ব্যথা। 

তাছাড়া কাজের চাপ, ভারী জিনিস তোলা, মানসিক চাপ ইত্যাদি কারণেও কোমর ও পিঠের যন্ত্রণা বাড়তে পারে। যত মানসিক চাপ বাড়বে ততই পেশী শক্ত হতে থাকবে, ফলে যন্ত্রণা বেড়ে যাবে। এই ব্যথার কারণে ঠিকভাবে কাজ করা অসম্ভব হয়ে ওঠে। তাই কয়েক মিনিটেই কোমর ও পিঠের ব্যথাকে দূর করার তিনটি কৌশল জেনে নিন। যা শুধু আপনার ব্যথা তৎক্ষণাৎ উপসমই করবে না, বরং পুনরায় ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা থেকেও প্রতিরোধ করবে।

মেঝেতে হ্যামস্ট্রিং প্রসারিত করা

মেঝেতে হ্যামস্ট্রিং প্রসারিত করা> একপা বাঁকিয়ে আপনার পিঠের ওপর ভর করে শুয়ে পড়ুন।

> একটি প্রসারিত দড়ি বা আপনার হাত ব্যবহার করে অন্য পা সোজা রেখে উপরে তুলে আপনার মাথার দিকে টানুন। আপনি আরামদায়ক অনুভব না করা পর্যন্ত এবং দৃঢ় প্রসারিত না হওয়া পর্যন্ত টানুন।

> এভাবে ৩০ সেকেন্ডের জন্য ধরে রাখুন এবং অন্য পায়েও একইভাবে এই কাজটি করুন।

> এটি দুইবার পুনরাবৃত্তি করুন।

কার্যকারিতা

হ্যামস্ট্রিং মূলত ঊরুর পেশী প্রসারিত করে আপনার পিঠের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। দীর্ঘস্থায়ী পেশী পিঠের নিম্নভাগের চাপ উপশম করে এবং ব্যথা কমাতে সহায়তা করে।

মেরুদন্ডের উপর ভর দিয়ে নাড়াচড়া করা

মেরুদন্ডের উপর ভর দিয়ে নাড়াচড়া করা> প্রথমে আপনার মাথা এবং হাত সমান্তরাল রেখে পিঠের ওপর ভর দিয়ে শুয়ে পড়ুন।

> এবার আপনার ডান পা উপরে উঠান এবং ডান পা বাম পায়ের উপর টেনে নামান।

> এটি করার সময় ধীরে ধীরে আপনার মাথা ডান দিকে ঘুরিয়ে নিন।

> ৩০ সেকেন্ডের জন্য এই অবস্থানে থাকুন।

> পরে ধীরে ধীরে আপনার স্বাভাবিক অবস্থানে ফিরে আসুন এবং অন্যদিকে পুনরাবৃত্তি করুন।

> এইভাবে দুইবার পুনরাবৃত্তি করুন।

কার্যকারিতা

এটি পিঠের নিচের ব্যথা হ্রাস করে এবং কাঁধটিকে শক্তিশালী করে। এটি আপনার সমর্থনকারী মেরুদণ্ডের পেশীগুলোকে প্রসারিত করে। 

কোবরা পোজ

কোবরা পোজ> আপনার বুকের পাশে দুই হাতের তালু রেখে এবং পেটের উপর ভর দিয়ে শুয়ে পড়ুন।

> তারপর ধীরে ধীরে আপনার শরীরের উপরের অংশ উঁচু করুন এবং ধনুকের মতো বাঁকা করুন। হাতের তালু দিয়ে মেঝেতে অতিরিক্ত চাপ দেবেন না। আপনি শুধুমাত্র আরাম পাওয়া পর্যন্ত বাঁকা করবেন।

> এই অবস্থান ৩০ সেকেন্ডের জন্য ধরে রাখুন।

> এভাবে পুনরায় চারবার করবেন।

কার্যকারিতা

এই ব্যয়াম কাঁধের পেশী প্রসারিত করে, কোমরের নিচের কাঠিন্যতা দূর করে এবং মেরুদণ্ড শক্তিশালী এবং প্রসারিত করে তুলে। তাছাড়া এটি চাপ এবং ক্লান্তি থেকে আপনাকে মুক্ত করবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ