Exim Bank Ltd.
ঢাকা, সোমবার ২২ অক্টোবর, ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫

মাশরাফি হলেন কেমিক্যাল, যার নাম ‘সাহস’

তানভীর আহম্মেদ সরকার
১৯৯২ সালের ২৯ জানুয়ারি বন্দর নগরী চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তানভীর আহম্মেদ সরকার। শহুরে আবহাওয়াতেই তার বেড়ে ওঠা। ছোট বেলা থেকেই ছিলো লেখালেখির ঝোঁক। ছাত্রজীবন থেকেই দেশের প্রথম সারির দৈনিক ও অনলাইনগুলোতে লিখেছেন ফিচার, প্রবন্ধ ও গল্প।এছাড়া বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেছেন সহ-সম্পাদক ও কন্ট্রিবিউটর হিসেবে। বর্তমানে ডেইলি বাংলাদেশ’র সহ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। পাশাপাশি অব্যাহত রেখেছেন গণমাধ্যমে লেখালেখি।

মাশরাফি বিন মর্তুজা। মাঠে তিনি সতীর্থদের বড় অনুপ্রেরণা। তার পরিচয় আলাদা করে দেয়ার কিছু নেই। কেননা তিনি বাঙালির প্রাণ, বাঙালির আশা, বাঙালির গর্ব। মাঠে তার উপস্থিতি মানেই এক জাগ্রত বাংলাদেশ।

দলের প্রয়োজনে কখনো ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন কখনো বা বল হাতে ভেঙে দিয়েছেন সেট ব্যাটসম্যানের উইকেট, কখনো কখনো শরীরের মায়া ত্যাগ করে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন ক্যাচ নিতে।

দেশের মাননীয় বড় ভাই ও গুরু সম্মানে খ্যাত মাশরাফি মাঠে থাকা মানেই টাইগারশিবির উজ্জীবিত। এর সঙ্গে তাল মিলিয়ে উজ্জীবিত হয় পুরো ১৮ কোটি হৃদয়।

আর সেটিরই প্রতিফলন হয়েছে এশিয়া কাপের অঘোষিত ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে বুধবারের ম্যাচটিতে। যেখানে মাঠে জ্বলে উঠা শোয়েব মালিককে সাজঘরে ফিরিয়ে দেয়া ক্যাচটি এখন পুরো বিশ্বের কাছে প্রশংসনীয়।

মাশরাফির আঙুল চেড়া ক্যাচটিই ঘুরিয়ে দিয়েছিল পুরো ম্যাচ। পুরো বিশ্ব সেই ক্যাচের জন্য মাশরাফির নাম দিয়েছে ‘দ্য সুপার ম্যাশ’। তৃতীয় উইকেটে ইমাম উল হককে নিয়ে ৬৪ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দেয়া মালিককে হারানোর পরই পথ হারিয়ে ফেলে পাকিস্তান। আর সেই হারানো পথেই নতুন করে আলো ফিরে পায় বাংলাদেশ।

এই মাশরাফিই বাংলাদেশের প্রথম স্পিডস্টার। এমনকি বাংলাদেশের জন্য একজন প্রকৃতি প্রদত্ত উপহার। বাঙালির ভালবাসা। সর্বকালের সেরা অধিনায়ক, টিম টাইগারদের অভিভাবক।

তিনি আসলে একজন ক্রিকেট যোদ্ধা। নিজের পায়ের সঙ্গে যুদ্ধ করে খেলে যাচ্ছেন দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য। মাশরাফি বলেছিলেন, পা দুটো বেইমানি করলেও ঘাড়ের রগ বাঁকা করে চ্যালেঞ্জ করবো নিজেকেই। শুধু একটা বল করতে চাই বাংলাদেশের হয়ে। আর সেই চ্যালেঞ্জটি প্রতিনিয়তই নিয়ে আসছেন টাইগার এ দলপতি।

পারফরম্যান্স যেমনই হোক না কেনো তাতে বাঙালির কিছুই যায় আসে না। কেননা সবাই চায় শুধু মাশরাফিকে মাঠে দেখতে। কেননা উনি এক ধরনের কেমিকেল। যার নাম ‘সাহস’। আর সেই কেমিকেল দিয়েই বাঙালি স্বপ্ন দেখে একদিন বিশ্ব জয় করার।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস/টিআরএইচ

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
আজো হিমঘরে সন্তানের প্রতীক্ষায় ‘বাবা’!
আজো হিমঘরে সন্তানের প্রতীক্ষায় ‘বাবা’!
আইয়ুব বাচ্চু মারা গেছেন
আইয়ুব বাচ্চু মারা গেছেন
দুই স্বামীকে ‘ছেড়ে’ মন্ট্রিলে দেখা মিলল তিন্নির!
দুই স্বামীকে ‘ছেড়ে’ মন্ট্রিলে দেখা মিলল তিন্নির!
না ফেরার দেশে সালমানের ‘শেষ প্রেমিকা’
না ফেরার দেশে সালমানের ‘শেষ প্রেমিকা’
প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার সময়সূচি
প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার সময়সূচি
যেভাবে প্রথম বুবলীর ‘ভাই’
যেভাবে প্রথম বুবলীর ‘ভাই’
স্ত্রী ফিরে দেখে বাসায় অন্য নারী!
স্ত্রী ফিরে দেখে বাসায় অন্য নারী!
‘ওয়েব সিরিজে ভরপুর নগ্নতা’ দেখার কেউ নেই!
‘ওয়েব সিরিজে ভরপুর নগ্নতা’ দেখার কেউ নেই!
দাম শুনলে চমকে যাবেন যে কেউই!
দাম শুনলে চমকে যাবেন যে কেউই!
মৃত্যুর আগে কোথায় ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু?
মৃত্যুর আগে কোথায় ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু?
অনেকেই সাবান জমান কেউ গোসলই করেন না!
অনেকেই সাবান জমান কেউ গোসলই করেন না!
এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির, প্রার্থনায় নেই বিবাদ
এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির, প্রার্থনায় নেই বিবাদ
দুলাভাইয়ের কাছে শ্যালিকার আবদার!
দুলাভাইয়ের কাছে শ্যালিকার আবদার!
বন্ধুর ‘অকাল প্রয়াণে’ যা বললেন হাসান
বন্ধুর ‘অকাল প্রয়াণে’ যা বললেন হাসান
এবার মেয়েকে নিয়ে মারাত্মক কথা বললেন ঐশ্বরিয়া!
এবার মেয়েকে নিয়ে মারাত্মক কথা বললেন ঐশ্বরিয়া!
‘বেঁচে আছেন বাচ্চু?’ এ কী শোনালেন!
‘বেঁচে আছেন বাচ্চু?’ এ কী শোনালেন!
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বাচ্চুর ৬০টি গিটার!
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বাচ্চুর ৬০টি গিটার!
১ কোটি টাকা চেয়েছিলেন অনন্ত
১ কোটি টাকা চেয়েছিলেন অনন্ত
মিলনেই মৃত্যু, কারা ছিলো সেই ‘বিষকন্যা’?
মিলনেই মৃত্যু, কারা ছিলো সেই ‘বিষকন্যা’?
কাদের ওপর চটেছেন জেমস?
কাদের ওপর চটেছেন জেমস?
শিরোনাম:
বাংলাদেশ দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন বাংলাদেশ দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে হারাল টাইগাররা ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে হারাল টাইগাররা