Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বুধবার ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

মাশরাফির বর্ণিল ১৭ বছরে সেরা উক্তিগুলো

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
মাশরাফির বর্ণিল ১৭ বছরে সেরা উক্তিগুলো
ছবি: সংগৃহীত

মাশরাফি বিন মর্তুজা তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ১৭ বছর পেরিয়ে ১৮ বছরে পা দিয়েছেন। দেশসেরা পেসার ও অধিনায়কের বর্ণিল এই ক্যারিয়ারের জন্য 'ডেইলি বাংলাদেশ'র পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও শ্রদ্ধা। 'নড়াইল এক্সপ্রেস' খ্যাত মাশরাফি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন উক্তির মাধ্যমে দল এবং মানুষকে উজ্জীবিত করেছেন। তার বিখ্যাত উক্তিগুলোকে তার ক্যারিয়ারের বর্ষপূর্তিতে তুলে ধরা হল।

  • তারকা হলেন শ্রমিকরা, দেশ গড়ে ফেলছেন। ক্রিকেট দিয়ে আমরা কি বানাতে পারছি? একটা ইটও কি ক্রিকেট দিয়ে বানানো যায়? একটা ধান জন্মায় ক্রিকেট মাঠে? যারা ইট দিয়ে দালান বানায়, কারখানায় এটা-ওটা বানায় বা ক্ষেতে ধান জন্মায়, তারকা হলেন তারা।

  • বীর হলেন মুক্তিযোদ্ধারা। তারা জীবন যাবে জেনেও সামনে গিয়ে লড়েছেন দেশের জন্য। আমরা কি করি? খুব বাজে ভাবে বলি, টাকা নিই, পারফর্ম করি। একটা অভিনেতা-গায়কের মতো পারফমিং করি। একটা অভিনেতা-গায়কের মতো পারফমিং আর্ট করি। এর এক ইঞ্চি বেশিও না। মুক্তিযোদ্ধারা গুলির সামনে এই জন্যে দাঁড়ায় নাই যে জিতলে টাকা পাবে। কাদের সঙ্গে কাদের তুলনা। ক্রিকেটে বীর কেউ থেকে থাকলে রকিবুল হাসান শহীদ জুয়েলরা।

  • মুক্তিযোদ্ধারা যদি পায়ে গুলি নিয়ে যুদ্ধ করতে পারে তাহলে আমি কেন সামান্য সার্জারি নিয়ে বোলিং করতে পারব না।

  • আমি জানিনা আমি কতদিন এই দলের সাথে খেলা চালিয়ে যেতে পারব। তবে যখন আমি বুঝতে পারব আমার দক্ষতা ও ইচ্ছা শক্তি কমে আসছে তখন আমি নিজে থেকেই সরে আসবো।

  • আমি ক্রিকেটার, একটা জীবন কি বাঁচাতে পারি? একজন ডাক্তার পারেন। কই, দেশের সবচেয়ে ভালো ডাক্তারের নামে কেউ তো একটা হাততালি দেয়া না! তাদের নিয়ে মিথ তৈরি করুন, তারা আরও পাঁচজনের জীবন বাঁচাবেন। তারাই তারকা।

  • রান না করলে মরবি না, ব্যাটিং কর। এটা জীবন না, খেলা।

  • চাইলে আমি অধিনায়ক না হয়ে বাকি ক্যারিয়ার নিরিবিলি খেলে যেতে পারতাম। কিন্তু চ্যালেঞ্জটা আমি নিতে চেয়েছি। আমার বাবারও এতে বড় অবদান। জানি না কেন, বাবা সবসময় চেয়েছেন, যেন আমি অধিনায়ক হই।

  • আমি মাশরাফিও যদি পারফর্ম না করি, তাহলে সরে যেতে হবে। দেশের হয়ে খেলতে নামলে, দেশের পতাকাকে প্রতিনিধিত্ব করলে জবাবদিহি থাকতেই হবে। ১৬ কোটি মানুষ খেলা দেখছে, ১৬ কোটি মানুষেরই জাজমেন্ট আছে। সেটাকে মূল্য দিতেই হবে।

  • ‘দলকে উজ্জীবিত করতে প্রতিহিংসার কথা বলতে হবে, এটা আমি বিশ্বাস করি না। দলকে উজ্জীবিত করতে কাউকে আঘাত করে কিছু বলতে হবে কেন?

  • 'আমরা নয় থেকে আটে এসেছি ও পরে আট থেকে সাতে উঠেছি এবং আরও ওপরে উঠতে পারি। অন্ততপক্ষে আমাদের উচিত, এ স্থান ঠিকভাবে ধরে রেখে সঠিক সময়ে আরো এগিয়ে যাওয়া। ক্রিকেট উত্থান পতনের খেলা, কিন্তু মূল জিনিসটি হচ্ছে ধৈর্যের সঙ্গে নিজের জায়গাটি ধরে রাখা।

  • ২০০ উইকেট নিয়ে আমি যদি আরো ১০০টি ম্যাচ খেলতে পারতাম, তাহলে আরো গুরুত্বপূর্ণ বোলার হতে পারতাম। সম্ভবত আমাকে নিয়ে সবাই অনেক গর্বিত হতো যদি আমি ৩০০ অথবা ৩৫০ উইকেট শিকারি কোন বোলার হতাম। আমি বিশ্বাস করি, আমার দীর্ঘ সময় ধরে খেলার সামর্থ্য আছে, যদিও আমি বাংলাদেশের হয়ে ১৪ বছর ধরে খেলেছি, ৩ তিন থেকে ৪ বছর হারিয়েছি ইনজুরির কারণে।

  • আমি আপনাকে এখন বলতে পারি, তামিম একদিন ১০ হাজার রান করবে, সাকিব করবে ১০ হাজার রান, সঙ্গে থাকবে ৪০০ উইকেট, মোস্তাফিজের থাকবে ৪০০ উইকেট এবং সৌম্যের ১০ হাজার রান। বাংলাদেশে সামনের ১০ বছরে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক আন্তর্জাতিক মানের প্লেয়ার বের করবে, যদি টাকার মোহযুক্ত টি টোয়েন্টি লীগগুলো সবাইকে আচ্ছন্ন না করে।

  • আমি সবসময় সাকিবকে অধিনায়ক হিসেবে চেয়েছি যদিও এখন আমি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছি। তবে ভবিষ্যতে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্বে আমি সাকিবকে দেখতে চাই। তাকে অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চাই তার সেরা পারফর্মার হওয়ার কারণে নয়, বরং এই কারণে যে তাকে আমাদের দলের সদস্যরা অনেক সম্মান করে।'

  • বাইরে সমালোচনা যতোই হোক, দলের ভেতরের পরিবেশ আসল। ড্রেসিং রুমে যদি কোনো নতুন ক্রিকেটার নিরাপদ না ভাবে নিজেকে, তখন তার জন্য পৃথিবীটাই কঠিন হয়ে যাবে।

  • আমরা জাতি হিসেবে খুব আবেগী। আবেগটা যেমন বড় শক্তির জায়গা, আবার প্রতিবন্ধকও। আবেগতাড়িত হয়ে আমরা অনেক সময় এমন চাপ দিয়ে ফেলি, ওই ক্রিকেটারের জন্য তখন কাজটা কঠিন হয়ে পড়ে। শচীন-লারা-পন্টিংদের খারাপ সময় এসেছে, সৌম্য-মুস্তাফিজ-লিটনদেরও আসবেই। এটাই স্বাভাবিক। তখন যদি আমরা ছুঁড়ে ফেলতে চাই, তাহলে ক্রিকেট এগোবে না।

  • আমি কিন্তু আবেগকে অনেক মূল্য দেই। আমার নিজেরও অনেক আবেগ। আবেগকে মূল্য দেই, কারণ আবেগ না থাকলে আমাদের দেশ স্বাধীন হতো না। আবেগ না থাকলে ৭১-এ আমরা যুদ্ধ করতে ঝাঁপিয়ে পড়তাম না। বউ-বাচ্চা-পরিবার সব ফেলে, বাস্তবতার হিসেব ভুলে যুদ্ধ করতে নেমেছি আবেগের কারণেই। আবার আবেগই আমাদের বিভিন্ন সময় পুড়িয়েছে বিভিন্ন ক্ষেত্রে। এটার ব্যাল্যান্স করা খুব দরকার।

  • মুস্তাফিজের সঙ্গে অন্য কোন বোলারের তুলনা হয় না। কারণ ও সবার চেয়ে আলাদা এবং তার সাথে কারো তুলনা করার সুযোগ নেই।

  • বাংলাদেশের হয়ে টানা একশ ম্যাচ জিতলেও তার পরের ম্যাচ জেতার তাগিদ একই থাকবে। তৃতীয় ম্যাচে তাই ছাড় দেওয়ার প্রশ্নই উঠে না।

  • রকিবুল ভাই ব্যাটে জয় বাংলা লিখে খেলতে নেমেছিলেন । তারচেয়েও বড় কাজ , বাবার বন্দুক নিয়ে ফ্রন্টে চলে গিয়েছিলেন । শহীদ জুয়েল ক্রিকেট রেখে ক্র্যাকপ্লাটুনে যোগ দিয়েছিলেন। এটাই হলো বীরত্ব। ফাস্ট বোলিং সামলানোর মাঝে রোমান্টিসিজম আছে , ডিউটি আছে কিন্তু বীরত্ব নেই।

  • পা দুটো বেইমানি করলেও ঘাড়ের রগ বাঁকা করে চ্যালেঞ্জ করবো নিজেকেই! শুধু একটা বল করতে চাই বাংলাদেশের হয়ে।

  • আমি সবাইকে অনুরোধ করব বেশি উত্তেজিত না হতে। আমাদের উচিত আমাদের প্রতিপক্ষকে সন্মান করা। একই সাথে আমাদের জয়-পরাজয়গুলোকে খুব রুঢ়ভাবে না নেওয়া। জীবনে প্রতিটি ক্ষেত্রে ধৈর্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি যে দলটি এখন উন্নতি করছে দুই বা তিন বছর পর তারা পেশাদারিত্বের পরিচয় দিবে।

  • কিছু হলেই আমরা বলি ১১ জন ১৬ কোটি মানুষের প্রতিনিধি। আমার মতে ৩ কোটি লোকও হয়তো খেলা দেখেন না। দেখলেও তাদের জীবন-মরণ খেলায় না, মানুষের প্রতিনিধিত্ব কারনে রাজনীতিবিদেরা, তাদের স্বপ্ন-ভবিষ্যৎ অন্য জায়গায়। এই ১১ জন মানুষের উপর দেশের ক্ষুধা, বেঁচে থাকা নির্ভর করে না। দেশের মানুষকে তাকিয়ে থাকতে হবে একজন বিজ্ঞানী, একজন শিক্ষাবীদের দিকে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
পুলিশের গাড়ি ভাঙায় ছাত্রদল নেতা বহিষ্কার
পুলিশের গাড়ি ভাঙায় ছাত্রদল নেতা বহিষ্কার
তাহলে কি এখনো তারা স্বামী-স্ত্রী?
তাহলে কি এখনো তারা স্বামী-স্ত্রী?
আবারো মা হচ্ছেন কারিনা!
আবারো মা হচ্ছেন কারিনা!
ভাবীর শরীরে দেবরের ‘আপত্তিকর’ স্পর্শ
ভাবীর শরীরে দেবরের ‘আপত্তিকর’ স্পর্শ
নির্বাচন একমাস পেছানোর আশ্বাস দিয়েছে ইসি: ড. কামাল
নির্বাচন একমাস পেছানোর আশ্বাস দিয়েছে ইসি: ড. কামাল
কাজলকে ‘জোর করে’ চুমু, ছিল অশ্লীল আচরণ!
কাজলকে ‘জোর করে’ চুমু, ছিল অশ্লীল আচরণ!
বিএনপিতে যোগ দিলেন সৈয়দ আলী
বিএনপিতে যোগ দিলেন সৈয়দ আলী
‘হট’ ভিডিওতে ভাইরাল পুনম
‘হট’ ভিডিওতে ভাইরাল পুনম
বাড়িতে বাবার লাশ, ছেলে পরীক্ষার হলে
বাড়িতে বাবার লাশ, ছেলে পরীক্ষার হলে
মুম্বাইতে ‘তারা’
মুম্বাইতে ‘তারা’
দাদি হলেন মমতাজ
দাদি হলেন মমতাজ
মির্জা ফখরুলকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম ছাত্রলীগের
মির্জা ফখরুলকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম ছাত্রলীগের
লাল শাড়িতে চীনে ঐশী!
লাল শাড়িতে চীনে ঐশী!
‘নৌকার মনোনয়ন পাবে জরিপে অগ্রগামীরা’
‘নৌকার মনোনয়ন পাবে জরিপে অগ্রগামীরা’
১৬ বছরেই মা হয়েছেন সানিয়া!
১৬ বছরেই মা হয়েছেন সানিয়া!
কে হবেন প্রধানমন্ত্রী? জানালেন ড. কামাল
কে হবেন প্রধানমন্ত্রী? জানালেন ড. কামাল
নৌকার মাঝি হতে চান প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী
নৌকার মাঝি হতে চান প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী
‘নির্বাচনে দায়িত্ব পেলে নিরপেক্ষ ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ করবে সেনাবাহিনী’
‘নির্বাচনে দায়িত্ব পেলে নিরপেক্ষ ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ করবে সেনাবাহিনী’
যৌনদাসী বানিয়ে অভিনেত্রীদের...
যৌনদাসী বানিয়ে অভিনেত্রীদের...
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬ আসনে আওয়ামী লীগের ৮১ প্রার্থী
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬ আসনে আওয়ামী লীগের ৮১ প্রার্থী
শিরোনাম:
৩০০ আসনেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশনা এরশাদের ৩০০ আসনেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশনা এরশাদের মহিলা ফুটবল দলের সঙ্গে ঢাকা ব্যাংকের ছয় বছরের চুক্তি মহিলা ফুটবল দলের সঙ্গে ঢাকা ব্যাংকের ছয় বছরের চুক্তি গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে; জাতীয় পার্টি যে জোটে থাকবে তারাই ক্ষমতাই আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে; জাতীয় পার্টি যে জোটে থাকবে তারাই ক্ষমতাই আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে; কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা : ইসি সচিব এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে; কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা : ইসি সচিব টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২ টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২ তৃতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে তৃতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে