Alexa মাননীয় মন্ত্রী, এক মুরগি কতবার বিক্রি করবেন, জনাব !

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৬ ১৪২৬,   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

মাননীয় মন্ত্রী, এক মুরগি কতবার বিক্রি করবেন, জনাব !

 প্রকাশিত: ১১:২৫ ১ জুন ২০১৭  

 উজ্জ্বল মুস্তাফিজ মাসের খরচের টাকা থেকে অনেক কষ্টে হাজার খানেক বাঁচিয়ে ব্যাংকে সরিয়ে রাখেন কত চাকরিজীবী? নিজের উপার্জনের টাকা থেকে নিজেই চুরি করেন। দিন শেষে ক্লান্ত শরীরে রিকশা না নিয়ে হেঁটেই ফেরেন। শুধু একটু সঞ্চয়ের জন্য। নিজের শখের দিকে না তাকিয়ে, ভবিষ্যতে আরেকটু ভালো থাকবেন বলেই একটা অবলম্বন গড়তে চান। এই একটু একটু করেই তারা স্বপ্ন দেখেন বছর গড়ালেই হয়তো একটু একটু জমানো টাকা একদিন বিপদের সম্বল হবে। কেউ স্বপ্ন দেখেন বৃদ্ধ বাবা-মার চিকিৎসার সহায় হবে এই টাকা। কেউ স্বপ্ন দেখে জমানো টাকায় বাবার বানানো বাড়ির ভেঙে যাওয়া দেওয়াল মেরামত করে বুড়ো বাবার মুখে হাসি ফুটাবে।  মুসলিম নাগরিকদের কেউ কেউ ভাবেন জীবনে একবার হজ্ব করতে যাবেন। এই টাকা হয়তো একদিন সেই কাজে সাহস যোগাবে। একইভাবে অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরাও তীর্থ গমনের ইচ্ছা পূরণে সেই অর্থ ব্যয় করেন। এ ছাড়া হঠাৎ করেই বিপদের সময় এই টাকাটুকুই সাধারণ মানুষবকে উদ্ধার করবে। ক্ষুদ্র এই সঞ্চয় একদিন বড় হবে, অবলম্বন হবে নতুন কর্মসংস্থানের। কেউ ভাবেন, রক্তঘামের পয়সা বাঁচিয়ে একদিন এক টুকরো জমি হবে। স্বপ্ন দেখেন নিজের ঠিকানারও। কেউ অবসর জীবনের আশ্রয় খোঁজেন এই জমানো টাকাতেই। এভাবেই এই জমানো টাকাই একজন করে বিজনেস আইকন উপহার দেয় জাতিকে, কেউ যোগ্য বাবা হন, কেউ সাবলম্বী বৃদ্ধ, কেউ সফল মানুষ! এরা সবাই প্রতি পদে পদে ভ্যাট, ট্যাক্স দিচ্ছেন। বেতন পাওয়ার সময় অফিসের মালিকের থেকে নিচ্ছেন, বেতন থেকে খরচের প্রতিটি ক্ষেত্রে ভ্যাট নিচ্ছেন, প্রতি বেলা রান্নায় গ্যাসের দাম নিচ্ছেন, বিদ্যুতের বিল নিচ্ছেন, যত খরচ আছে সবখান থেকে নিচ্ছেন। এত দেওয়ার পরও ব্যাংকে জমালেও নিবেন??? মানুষগুলোর এত কষ্টের টাকা থেকে শুধু একটু সঞ্চয় করবে-- তার জন্যেও কর নিবেন? এত করের ফাঁদ পাতলে সঞ্চয়ের আগ্রহ কার থাকবে? একটি পরিবারের সঞ্চয় কি দেশের সঞ্চয় না? কত পরিবারের উপার্জনক্ষম মানুষ মারা গেছেন! সেই মৃত মানুষের সঞ্চয়ের উপরেই টিকে আছে পরিবারগুলো! বছর বছর একই টাকার ওপর কর বসালে এই পরিবারগুলো টিকবে কীভাবে? এক মুরগি কতবার বিক্রি করবেন, জনাব?   লেখক : সাংবাদিক, সাতক্ষীরা