.ঢাকা, শুক্রবার   ২২ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৮ ১৪২৫,   ১৫ রজব ১৪৪০

মাদারীপুরে বাল্য বিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও

মাদারীপুর প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৭:৫৩ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৭:৫৩ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বর-কনে দু'জনই কিশোর-কিশোরী। কনের বয়স মাত্র ১৩ আর বরের ১৫। প্রথম থেকেই এ বিয়েতে বাঁধা দিয়ে আসছিলেন স্থানীয়রা।

তারপরও স্থানীয় লোকজনদের কোন পাত্তা না দিয়ে উভয়পক্ষই মিলে গোপনে বিয়ের আয়োজন করেন দুই পরিবার। তবে কালকিনি ইউএনও মো. আমিনুল ইসলাম এর হস্তক্ষেপে বন্ধ হয় একটি বাল্যবিবাহ। 

কালকিনি পৌর এলাকার পশ্চিম মিনাজদী গ্রামে শনিবার সন্ধ্যায় ওই গ্রামের আলম হাওলাদারের ১৩ বছরের কিশোরী মেয়ের সঙ্গে একেই গ্রামের জব্বারের ১৫ বছরের কিশোর ছেলের গোপনে বিয়ের আয়োজন উভয়ের পরিবার। এ ঘটনার টের পেয়ে স্থানীয়রা বাধা প্রদান করেন। কিন্তু তাদের কথা না শুনে গোপনে উভয় পক্ষ বিয়ের আয়োজন চালিয়ে যান। গোপনে বাল্যবিয়ের আয়োজনের খবরটি উপজেলা লিগাল এইডের কর্মী ঝর্না ও কহিনুর বেগম স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে জানতে পেরে ইউএনও মো. আমিনুল ইসলামকে জানান। পরে ইউএনও বিয়ে বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বাল্য বিয়েটি তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করে দেন। 

মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, আমাকে  বাল্য বিয়ের খবর দিয়েছে লিগাল এইডের কর্মী ঝর্না ও কহিনুর। পরে আমি সেখানে গিয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ