.ঢাকা, শুক্রবার   ২২ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৮ ১৪২৫,   ১৫ রজব ১৪৪০

দুর্ঘটনা নয়, ফিল্মি কায়দায় হত্যা

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৭:৪২ ১০ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৭:৪২ ১০ নভেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নিছক দুর্ঘটনা নয়, হত্যার উদ্দেশেই লালমিয়াকে ফিল্মি কায়দায় ট্রাকচাপা দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন নিহতের স্ত্রী ঝুমা আক্তার।

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাবে শনিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি।

ট্রাক চালক সবুজ ও তার গাড়ির হেলপার রুবেলের নামে কালীগঞ্জ থানায় হত্যা মামলাও করেছেন। পুলিশ সবুজকে আটক করে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে। 

নিহত লাল মিয়া কালীগঞ্জ পৌর এলাকার চৈতারপাড়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে। অভিযুক্ত সবুজ একই গ্রামের মো. আফজাল হোসেনের ছেলে। 

৫ নভেম্বর উপজেলার টঙ্গী-কালীগঞ্জ-ঘোড়াশাল বাইপাস সড়কে সবুজের ট্রাকের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে লাল মিয়া মারা যান। প্রাথমিকভাবে এটি সড়ক দুর্ঘটনা বলে মনে হলেও পুলিশের তদন্তে জানা যায় জমি নিয়ে পূর্ব শক্রতার জেরে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

মামলার বাদী ঝুমা আক্তার বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে চলতি বছরের শুরুর দিকে সবুজ ভাড়া করা সন্ত্রাসী নিয়ে আমার স্বামীকে মারধর করে। এ ঘটনায় মামলাও করেন তিনি। সেই মামলায় জামিনে মুক্তি পেয়ে সবুজ মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিত। ওই ঘটনার জেরেই সোমবার আমার স্বামীকে ট্রাকচাপা দিয়ে মারে সে। 

কালিগঞ্জ থানার এসআই মো. সুলতান উদ্দিন খান বলেন, লাল মিয়ার সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধের জেরেই মারামারি, পাল্টাপাল্টি মামলা ও হত্যাকাণ্ড ঘটায় সবুজ। ঘাতক ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়েছে। কিছু আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর