মাকে হত্যার দায়ে সন্তানের ফাঁসি

ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

মাকে হত্যার দায়ে সন্তানের ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২৪ ৫ মে ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

১২ বছর আগে রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় মা হনুফা বেগমকে হত্যার দায়ে ছেলে মোবারককে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

রোববার জননিরাপত্তা ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম চমন চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন।

মোবারক তার মাকে গলায় কাপড় পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

মামলায় অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ২৪ আগস্ট বিকেলে মোবারক তার মায়ের কাছে কিছু টাকা চায়। মা হনুফা বেগম টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে মোবারক তাকে মারধর করে এবং মেরে ফেলার হুমকি দেয়। ২৭ আগস্ট সকালে হনুফা বেগমের ভাই আব্দুর রশিদ লোকমুখে শোনেন তার বোনের রুমের বাইরে থেকে তালা দেয়া এবং ঘর থেকে পচা গন্ধ বের হচ্ছে। পরে পুলিশে খবর দিলে তারা গিয়ে ঘর থেকে হনুফা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে। 

বাদী আরো জানতে পারেন, ২ থেকে ৩ দিন আগে মোবারক তার সহযোগীদের নিয়ে মা হনুফাকে হত্যা করে। গলায় কাপড় পেঁচিয়ে হত্যা করে বিছানার ওপর লাশ রেখে কাঁথা-বালিশ ও অন্যান্য কাপড়চোপড় দিয়ে ঢেকে রেখে রুমে তালা লাগিয়ে চলে যায়। 

ওই ঘটনায় হনুফা বেগমের ভাই আব্দুর রশিদ ২০০৭ সালের ২৭ আগস্ট হাজারীবাগ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

৪ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হাজারীবাগ থানার এসআই ফারুক ভূঁইয়া অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০০৮ সালের ২ মার্চ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলাটির বিচার চলাকালে বিভিন্ন সময় ১২ জন সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন আদালত।

হনুফা বেগম সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মী ছিলেন। মোবারক ছিলেন তার বেকার সন্তান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই