Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

মহাবীর আলেকজান্ডার

খাদিজা তুল কুবরাডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
মহাবীর আলেকজান্ডার
মহাবীর আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট

প্রায় আড়াই হাজার বছর পূর্বে জন্ম নেন মরপ্রতিভা আর অসাধারণ নেতৃত্বগুণে বলিষ্ঠ এক মানব। যিনি জয় করে নেন অর্ধেক পৃথিবী। ইতিহাসের সোনালি পাতায় নিজের নাম অঙ্কিত করেন অবিস্মরণীয় কীর্তিতে। মানুষ যার নামের সঙ্গে মহান শব্দটি যোগ করতে কুন্ঠাবোধ করে না। তিনি আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট।

আলেকজান্ডার যেন এক আকস্মিক ধূমকেতুর মত। হঠাৎ আবির্ভূত হয়ে পৃথিবীর এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ছুটে চলেছেন বিজয়ের নেশা নিয়ে। একের পর এক দেশ জয় করেছেন আর নিজের বিজয় পতাকা উড়িয়েছেন। মাত্র ১৩ বছরের মধ্যে তিনি গ্রিস থেকে শুরু করে মিশর, পারস্য জয় করে ভারতবর্ষের উত্তর পশ্চিম সীমান্ত পর্যন্তু জয় করেছিলেন। তাকে বলা হতো অজেয়, কারণ তিনি কোনো যুদ্ধেই পরাজয় বরণ করেন নি।

আলেকজান্ডারকে যদিও গ্রিক বীর বলা হয়। গ্রিক হিসেবেই তিনি বহুল পরিচিত, কিন্তু তিনি জাতিতে গ্রিক ছিলেন না। গ্রিসের উত্তরে ম্যাসিডন বলে একটা দেশ আছে, জন্মসূত্রে সেখানকার অধিবাসী ছিলেন আলেকজান্ডার। তার বাবা ফিলিপ ছিলেন ম্যাসিডনের রাজা। চমৎকার চৌকস এক সৈন্যবাহিনী তৈরি করে গ্রিসের উপনিবেশগুলো তিনি জয় করেছিলেন। তবুও সেখানে বিদ্রোহ লেগেই থাকত। আলেকজান্ডার জন্মগ্রহণ করেন ৩৫৬ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে। ছোটবেলা থেকেই তিনি দূরন্ত আর উচ্চাভিলাষী। দেশ জয়ের এক অদম্য বাসনা খেলা করতো তার রন্ধ্রে রন্ধ্রে। রাজা ফিলিপ যখন কোনো দেশ বা গুরুত্বপূর্ণ নগরী জয় করতেন তখন আনন্দিত হওয়ার বদলে আলেকজান্ডার বিমর্ষ হয়ে পড়তেন। সবাই যখন জিজ্ঞেস করতো আজ এই খুশীর দিনে তোমার মন বিষণ্ণ কেন? তিনি জবাব দিতেন, 'সব দেশই তো বাবা জয় করে ফেলছেন আমি কী জয় করবো?'

আলেকজান্ডার এর শিক্ষার জন্য অনেক শিক্ষক এবং গুরু নিযুক্ত ছিলেন। এই শিক্ষকদের মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত ছিলেন গ্রিক দার্শনিক এরিস্টটল। আলেকজান্ডার এরিস্টটল এর কাছ থেকে নৈতিক, রাজনৈতিক মতবাদ ছাড়াও আরো অনেক দূর্বোধ্য, নিগূঢ় মতবাদ বিষয়ে জ্ঞান লাভ করেন। পিতা ফিলিপের মৃত্যুর পর মাত্র বিশ বছর বয়সে আলেকজান্ডার সিংহাসনে আরোহণ করেন। সিংহাসনে বসেই তিনি ঠিক করলেন পুরনো শত্রু পারস্য দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধযাত্রা করবেন। কিন্তু আলেকজান্ডার মাত্র বিশ বছর বয়সে এমন এক রাজ্যের উত্তরাধিকারী হন যে রাজ্য চারদিক থেকে বিপদের সম্মুখীন এবং শত্রু দ্বারা বেষ্টিত। শুরুতে তাকে অধীকৃত অনেকগুলো রাজ্যের বিদ্রোহ দমন করতে হলো। বিদ্রোহ দমনে তিনি নিষ্ঠুরতার পরিচয় দিয়েছিলেন।

থিবস নগরী তার বশ্যতা স্বীকার না করায় তিনি সে নগরীকে আক্রমণ করে একেবারে ধ্বংসস্তূপ এ পরিণত করে দেন। অসংখ্য লোককে তিনি হত্যা করলেন এবং ক্রীতদাস হিসেবে বিক্রি করে দিলেন। নারী, শিশু ও বৃদ্ধসহ সবমিলিয়ে ত্রিশ হাজার থিবসবাসীকে ক্রীতদাস হিসেবে বিক্রি করে দেয়া হয় আর হত্যা করা হয় ছয় হাজার মানুষকে। তারপর তিনি এগিয়ে যান দিগ্বিজয়ের উদ্দেশ্যে। মিশর তখন ছিল পারস্যরাজ দারিয়ুসের অধিকারে। আলেকজান্ডার দারিয়ুসকে বললেন আত্মসমর্পণ করতে। কিন্তু দারিয়ুস সে প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় তিনি যুদ্ধ ঘোষণা করলেন। দারিয়ুসকে সহজেই পরাজিত করে মিশর দখল করলেন এবং পারস্যর দিকে এগুলেন। পারস্যে তিনি দারিয়ুসকে দ্বিতীয়বার পরাজিত করেন। তিনি সম্রাট দারিয়ুসের প্রাসাদ সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করে দেন।

আলেকজান্ডার তার জয় করা রাজ্যগুলোতে তার মনোনীত প্রতিনিধি নিযুক্ত করে পারশ্য থেকে ক্রমে সামনের দিকে এগুতে লাগলেন। পারস্য থেকে আলেকজান্ডার নতুন সৈন্যও সংগ্রহ করেন। বর্তমান কাবুল, হিরাট, সমরকন্দ যেখানে অবস্থিত সেখান দিয়ে তিনি সিন্ধু নদের অববাহিকায় উপস্থিত হলেন। সেখানে পুরু নামে ভারতীয় এক রাজার সঙ্গে যুদ্ধ হলো। যুদ্ধে খুব বেকায়দায় পড়ে যায় আলেকজান্ডার এর সৈন্যবাহিনী। কিন্তু শেষপর্যন্ত তারা জয়লাভ করে। সেখানে জয়ী হয়ে তিনি বর্তমান রাওয়ালপিন্ডির কাছে অবস্থিত তক্ষশীলা পর্যন্ত অগ্রসর হন। তার ইচ্ছে ছিল ভারতের দক্ষিণদিকে অগ্রসর হবার। কিন্তু আলেকজান্ডার এর সৈন্যরা আর অগ্রসর হতে চায়নি। তারা দীর্ঘপথ পরিক্রমের কারণে ক্লান্ত ছিল। এছাড়াও ভারতবর্ষের রাজ্যগুলোর বিপুল সৈন্যসংখ্যা তাদের সংকল্প দূর্বল করে দিয়েছিল।

অনিচ্ছাসত্ত্বেও ফেরার পথ ধরতে হয় আলেকজান্ডারকে। কিন্তু ফেরার পথে তার সৈন্যবাহিনীকে খাদ্য ও পানীয় সমস্যায় ভীষণ দূর্ভোগ পোহাতে হয়। যাত্রাপথে ব্যবিলন শহরে আলেকজান্ডার অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেখানেই খ্রিষ্টপূর্ব ৩২৩ অব্দে মাত্র তেত্রিশ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়।

আলেকজান্ডার অনেক দেশ জয় করেছিলেন সত্যি কিন্তু স্থায়ী কোনো প্রভাব রাখতে পারেননি। এমনকি স্থায়ী কোনো স্থাপত্য বা রাস্তাঘাটও তৈরি করেননি। কেবল লুণ্ঠন আর দেশজয়ের দূরন্ত নেশা তাকে অভিভূত করে রেখেছিল। যে বিশাল সাম্রাজ্য আলেকজান্ডার দখল করেছিলেন তার মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গেই তার সেনাপতিরা সে সাম্রাজ্য ভাগাভাগি করে নেন।

তার আবির্ভাব যেন অনেকটা উল্কাপাতের মত। যে কিনা হঠাৎ আবির্ভূত হয়ে চোখ ধাঁধিয়ে যান সবার। কিন্তু তবুও পৃথিবীর ইতিহাসে তিনি এক স্মরণীয় নাম। আলেকজান্ডার নিজের কাছে সবসময় হোমারের ‘ইলিয়াড’ মহাকাব্যটি রাখতেন। ‘ইলিয়াডে’র বীর একিলিসের উত্তরপুরুষ ভাবতেন নিজেকে। একসময় তিনি ভাবা শুরু করলেন তিনি আসলে দেবতার সন্তান। সেভাবেই সবার সামনে আচরণ করতেন কিন্তু নিয়তির গভীর রসিকতা যে তিনি নিজে দেবতার মতো অমরত্ব পাননি। মৃত্যুপথের অনিবার্য পথে তাকে যেতে হয়েছে। আলেকজান্ডার চিরজীবন লাভ না করতে পারলেও তার অসীম বীরত্ব তাকে দিয়েছে ঐতিহাসিক এক মর্যাদা। পৃথিবীর ইতিহাসের ধূসর পাতায় তাকে হয়েছে এক মহিমান্বিত স্থান আর তাকে দিয়েছে এক মহিমান্বিত নাম - ‘আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট’।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস/এসজেড

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
শিস দিয়েই দুই বাংলার তারকা জামালপুরের অবন্তী
শিস দিয়েই দুই বাংলার তারকা জামালপুরের অবন্তী
সোনালী বেন্দ্রের মৃত্যু!
সোনালী বেন্দ্রের মৃত্যু!
সুজির মালাই পিঠা
সুজির মালাই পিঠা
অবন্তী সিঁথির জয়জয়কার
অবন্তী সিঁথির জয়জয়কার
জাতীয় পার্টির ‘মনোনয়ন’ পাচ্ছেন হিরো আলম
জাতীয় পার্টির ‘মনোনয়ন’ পাচ্ছেন হিরো আলম
গৌরী আমাকে শুধরে দিয়েছে: শাহরুখ
গৌরী আমাকে শুধরে দিয়েছে: শাহরুখ
যদি তুমি রুখে দাঁড়াও তবেই তুমি বাংলাদেশ!
যদি তুমি রুখে দাঁড়াও তবেই তুমি বাংলাদেশ!
মডেলের অশ্লীল কাণ্ড!
মডেলের অশ্লীল কাণ্ড!
শচীনের সঙ্গে অভিনেত্রীর ‘গোপন’ সম্পর্ক!
শচীনের সঙ্গে অভিনেত্রীর ‘গোপন’ সম্পর্ক!
‘তারেকের তিন গাড়ি, আমার বোন চলে বাসে’
‘তারেকের তিন গাড়ি, আমার বোন চলে বাসে’
বিয়ে ছাড়াই মা হলেন জিৎ-এর প্রেমিকা!
বিয়ে ছাড়াই মা হলেন জিৎ-এর প্রেমিকা!
নিককে প্রকাশ্যে চুমু খেলেন প্রিয়াঙ্কা
নিককে প্রকাশ্যে চুমু খেলেন প্রিয়াঙ্কা
ন্যান্সি ও তার স্বামীকে গ্রেফতারের দাবি
ন্যান্সি ও তার স্বামীকে গ্রেফতারের দাবি
বিবাহিতা বা সন্তানের মা হলে ১০ লাখ জরিমানা!
বিবাহিতা বা সন্তানের মা হলে ১০ লাখ জরিমানা!
দিশার সঙ্গে হৃত্বিকের সম্পর্ক, মুখ খুললেন বয়ফ্রেন্ড!
দিশার সঙ্গে হৃত্বিকের সম্পর্ক, মুখ খুললেন বয়ফ্রেন্ড!
লাপাত্তা সারিকা!
লাপাত্তা সারিকা!
যৌনতায় ঠাসা ৫টি সিনেমা
যৌনতায় ঠাসা ৫টি সিনেমা
‘বেডরুম’র গোপন তথ্য ফাঁস করলেন সোনম!
‘বেডরুম’র গোপন তথ্য ফাঁস করলেন সোনম!
প্রধানমন্ত্রীর কবর খোঁড়া সেই মোকছেদ গ্রেফতার
প্রধানমন্ত্রীর কবর খোঁড়া সেই মোকছেদ গ্রেফতার
এ কেমন কাণ্ড পুলিশ পুত্রের!
এ কেমন কাণ্ড পুলিশ পুত্রের!
শিরোনাম:
এশিয়াকাপে ভারতের সঙ্গে ২৬ রানে হেরে হংকংয়ের বিদায় এশিয়াকাপে ভারতের সঙ্গে ২৬ রানে হেরে হংকংয়ের বিদায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ-ভারত পাইপলাইন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ-ভারত পাইপলাইন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদি আর জোর করে সিল মারতে দেয়া হবে না: এরশাদ আর জোর করে সিল মারতে দেয়া হবে না: এরশাদ ২১ আগস্ট হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর ২১ আগস্ট হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর