Alexa ইইউর রায়ে ‘মহাবিপদে’ পড়েছে ফেসবুক!

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ৬ ১৪২৬,   ২২ সফর ১৪৪১

Akash

ইইউর রায়ে ‘মহাবিপদে’ পড়েছে ফেসবুক!

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৩ ৩ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ২০:২৯ ৩ অক্টোবর ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোনো পোস্ট ‘অবৈধ’ কিংবা ‘মানহানিকর’ বিবেচিত হলে পৃথিবীর অন্য দেশ থেকেও একই ধরনের পোস্ট ডিলিট করতে হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের রিপোর্টের অপেক্ষায় না থেকে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে নিজ থেকেই খুঁজে খুঁজে এসব কাজ করতে হবে। 

বৃহস্পতিবার ইইউর সর্বোচ্চ আদালত থেকে এমনই এক রায় দেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে অনেকে এই রায়কে যুগান্তকারী হিসেবেও আখ্যা দিয়েছেন।

এদিকে বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে বিবিসি বলছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ইতিহাসে এটি ‘যুগান্তকারী’ রায়। যদি শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকে তবে ফেসবুক-টুইটারের মতো প্রতিষ্ঠান বাড়তি ঝামেলায় পড়ে যাবে।

এই রায়ের পরপরই তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ফেসবুকের একজন মুখপাত্র বলেন, এই রায় মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

জানা গেছে, অস্ট্রিয়ান এক রাজনীতিবিদ সম্পর্কে সে দেশের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী নেতিবাচক মন্তব্য করেন। দেশটির আদালত জানায়, ওই কমেন্ট নারী রাজনীতিবিদ ইভা গ্লাভিস্কনিগ-পাইস্কেকের সম্মান নষ্ট করেছে। এরপরই বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়।

ইইউর আইন বলছে, ফেসবুকসহ অন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের বাজে মন্তব্যের দায় প্রতিষ্ঠানগুলোর ঘাড়ে পড়ে না। বিষয়টি সম্পর্কে রিপোর্ট হওয়ার পর তাদের দায়িত্বের প্রশ্ন আসবে এবং দ্রুততম সময়ে ডিলিট করতে হবে।

এই আইন নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পর অস্ট্রিয়ার সুপ্রিম কোর্ট ইউরোপের সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয়।

বৃহস্পতিবারের রায়ে তিনটি বিষয় পরিষ্কার করা হয়েছে:

১. ইইউ’র আদালত কোনো পোস্টকে ‘অবৈধ’ বললে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোকে সেটি ডিলিট করতে আদেশ দিতে পারবে।

২. একই ধরনের অন্য পোস্টও মুছে ফেলার আদেশ দেয়া হতে পারে।

৩. প্রাসঙ্গিক কোনো আন্তর্জাতিক আইন বা চুক্তি থাকলে মাধ্যমগুলোকে অন্য দেশ থেকেও অবৈধ পোস্ট মুছে ফেলতে হতে পারে।

এই রায় প্রসঙ্গে বিবিসি জানিয়েছে, এই রায়ের বিরুদ্ধে ফেসবুক কোন আপিল করতে পারবে না।

ফেসবুক বলছে, এই রায়ের কোনো যুক্তি নেই। কারণ একটি দেশ অন্য দেশের আইন সম্পর্কে এভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর