Alexa মরে যাচ্ছে মাগুরার নদী

ঢাকা, রোববার   ১৯ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ৫ ১৪২৬,   ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

মরে যাচ্ছে মাগুরার নদী

 প্রকাশিত: ১৬:১০ ২৭ এপ্রিল ২০১৮   আপডেট: ১৭:০৩ ২৭ এপ্রিল ২০১৮

মাগুরা জেলায় প্রবাহিত নবগঙ্গা, মধুমতি, গড়াই, কুমার এবং ফটিক নদী এখন মৃতপ্রায়। বর্ষা মৌসুমে উজান থেকে নেমে আসা পলিবাহিত পানির প্রভাবে নাব্যতা হারাচ্ছে। পানি ধারণ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে।

একারণে বর্ষা মৌসুমে তীরবর্তী এলাকা যেমন প্লাবিত হচ্ছে তেমনই শুষ্ক মৌসুমে চর জেগে ওঠছে। এসব চরে কোথাও ধান চাষ এবং কোথা গরু-ছাগল চড়ানো হয়। এসব নদীগুলোর ড্রেজিং ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় পলি জমে যাচ্ছে নদীর তলদেশে। 

নব্বই দশকে নবগঙ্গা নদীতে প্রায় ১শ’ কোটি টাকা ব্যায়ে একটি স্লুইস গেট নির্মাণ করা হলেও তা লক্ষ্য অর্জনে ব্যার্থ হয়েছে।

স্থানীয়দের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, একসময় এসব নদীর প্রত্যেকটিই ছিল অনন্ত যৌবনা। ছিল খরস্রোতা। এসব নদীতে চালানো হতো বড় বড় লঞ্চ, স্টিমারসহ অসংখ্য নৌযান।

ভাষা সৈনিক প্রবীণ শিক্ষাবিদ খান জিয়াউল হক নবগঙ্গার করুণ দশা নিয়েই শুধু আক্ষেপ করলেন না, এ নদীতে বর্জ্য ফেলা বন্ধ করে এটিকে বাঁচিয়ে তোলার ফলপ্রসূ পদক্ষেপ দাবি জানিয়েছ্নে তিনি। তার মতে, নদীগুলোর এ পরিণতির জন্য শুধু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতাকেই দায়ী করেছেন তিনি।

মাগুরার পানি উন্নয়ন বোর্ডে নির্বাহী প্রকৌশলী সমীর কুমার ভট্টাচার্য জানালেন, নদীগুলোর নাব্যতা ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সম্প্রতি তারা যে সরকারি নির্দেশনা পেয়েছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম