মনোনয়নপ্রত্যাশীর ছড়াছড়ি আওয়ামী লীগে

ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৬,   ২১ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

মনোনয়নপ্রত্যাশীর ছড়াছড়ি আওয়ামী লীগে

 প্রকাশিত: ২১:১৩ ৮ জুন ২০১৮   আপডেট: ২১:৫৮ ৮ জুন ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রংপুর-২ (বদরগঞ্জ-তারাগঞ্জ) আসনে একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির একাধিক প্রার্থী গণসংযোগ শুরু করেছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা পোস্টার ছাপিয়ে ভোটারদের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

দশম জাতীয় নির্বাচনে এ আসনের এমপি নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের আবুল কালাম আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক। এবার এই আসন থেকে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন ডিউকের চাচাতো ভাই বদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক টুটুল চৌধুরী। টুটুল চৌধুরী ইতোমধ্যে এলাকায় গণসংযোগ শুরু করেছেন।

টুটুল চৌধুরী বলেন, বর্তমান এমপি দলীয় নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন করেন না। তাই আমি এবার নির্বাচন করবো। আমার বাবা আনিছুল হক চৌধুরী ৫বার এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। এ কারণে দল আমাকে মনোনয়ন দেবে বলে আশা করছি।

Rangpur

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা জানান, আনিছুল হক চৌধুরীর ছেলে হওয়ার সুবাদে অনেক কেন্দ্রীয় নেতা তাকে এবার এই আসন থেকে প্রার্থী করার আশ্বাস দিয়েছেন।

বর্তমান এমপি আবুল কালাম আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক বলেন, আমি এলাকার অনেক উন্নয়ন করেছি। জনগণ আমাকেই চায় এবং আমিই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাবো। অপরদিকে কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটু দলীয় মনোনয়োন পেতে মরিয়া। তিনিও এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ শুরু করেছেন।

বিশ্বনাথ সরকার বিটু বলেন, এমপি ডিউক ও বদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক টুটুল চৌধুরীর কোন্দলের কারণেই এ আসনের মানূষ আমাকে এমপি হিসেবে দেখতে চায়। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি বিপুল ভোটের ব্যবধানে এমপি নির্বাচিত হব।

এছাড়া আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হতে পারেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ও রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য ড. শাহ্ নওয়াজ আলী।

ড. শাহ্ নওয়াজ আলী জানান, আমি দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি। আমি মনোনয়োন পাব আশা করছি।

অপরদিকে নির্বাচনী মাঠে রয়েছে জাতীয় পার্টির ২ প্রার্থী। সাবেক এমপি আনিসুল হক মন্ডল ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান চৌধুরী সাবলু।

বিএনপি থেকে তৎপর রয়েছেন জাতীয় পার্টি থেকে দলে যোগদানকারী সাবেক এমপি ও বদরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক পরিতোষ চক্রবর্তী, সাবেক এমপি মোহাম্মদ আলী সরকার এবং বদরগঞ্জ পৌর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সুপ্রিম কোর্ট শাখা আইনজীবী ফোরামের সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. গোলাম রছুল বকুল ও রংপুর জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আফতাব উদ্দিন।

তবে দুই নেতা মোহাম্মদ আলী সরকার ও পরিতোষ চক্রবর্তীকে মাঠে নামতে দেখা যায়নি। বিএনপির এই দুই নেতা জানান, দল যাকে মনোনয়ন দেবে আমরা তার জন্য কাজ করবো। তবে দুই জনেই মনোনয়নপ্রত্যাশী।  

এছাড়া তারাগঞ্জ উপজেলার হাড়িয়ারকুঠি ইউনিয়ন পরিষদের তিন বারের সাবেক চেয়ারম্যান, রংপুর জেলা জাসদের (ইনু) সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি কুমারেশ রায় জাসদ (ইনু) দলীয় মনোনয়ন চাইবেন।

উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও বখসীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান চৌধুরী সাবলু জানান, দলের চেয়ারম্যান আমাকে মনোনয়ন দেবেসন বলে আস্বস্ত করেছেন। আমি এই আসন থেকে মনোনয়ন পাব।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ

Best Electronics