Alexa মদ, জুয়া, বলি ও ভাগ্য গণনা শয়তানের অপবিত্র কাজ (পর্ব-১)

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৮ ১৪২৬,   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

মদ, জুয়া, বলি ও ভাগ্য গণনা শয়তানের অপবিত্র কাজ (পর্ব-১)

প্রিয়ম হাসান ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৮ ২০ জুন ২০১৯   আপডেট: ১৮:৫২ ২০ জুন ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনুল কারিমে মদ, জুয়া, বলি ও ভাগ্য গণনা সম্পর্কে বলেন,

يَا أَيُّهَا الَّذِيْنَ آمَنُوْا إِنَّمَا الْخَمْرُ وَالْمَيْسِرُ وَالأَنصَابُ وَالأَزْلاَمُ رِجْسٌ مِّنْ عَمَلِ الشَّيْطَانِ فَاجْتَنِبُوهُ لَعَلَّكُمْ تُفْلِحُونَ- إِنَّمَا يُرِيدُ الشَّيْطَانُ أَن يُوْقِعَ بَيْنَكُمُ الْعَدَاوَةَ وَالْبَغْضَاء فِيْ الْخَمْرِ وَالْمَيْسِرِ وَيَصُدَّكُمْ عَن ذِكْرِ اللهِ وَعَنِ الصَّلاَةِ فَهَلْ أَنْتُم مُّنْتَهُوْنَ-

‘হে ঈমানদারগণ! মদ, জুয়া, দেবতার নামে বলি দেয়া ও লটারী দ্বারা ভাগ্য গণনা শয়তানের অপবিত্র কাজ। অতএব এসব কাজ থেকে দূরে থাক যাতে তোমরা সফলকাম হতে পার। মদ ও জুয়ার মধ্যে দিয়ে শয়তান তোমাদের মধ্যে শত্রুতা ও বিদ্বেষ সৃষ্টি করতে চায় এবং আল্লাহর স্বরণ ও নামাজ থেকে তোমাদেরকে বিরত রাখতে চায়। তোমরা কী বিরত থাকবে?  (সূরা আল মায়েদাহ ৫/৯০-৯১)। 

আরো পড়ুন>>> যে মসজিদে মুসল্লিরা নামাজ পড়ছেন পানির ওপরে!

যেকোনো ধরনের জুয়া-ই এ আয়াতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, চাই তা দাবা, তাস, পাশা, গুটি অথবা অন্য কোনো জিনিস দ্বারা খেলা হোক। এটা আসলে অবৈধ পথে মানুষের সম্পদ আত্নসাৎ ও লুন্ঠন করার আওতাভুক্ত।

রাসূল (সা.) বলেন, ‘যারা অন্যায়ভাবে মানুষের  সম্পদ আত্নসাৎ করে তাদের জন্য রয়েছে জাহান্নামে কঠিন আজাব।’ (বুখারী)

রাসূল (সা.) আরো বলেন,  ‘কেউ যদি এরুপ দাওয়াত দেয় যে এসো, তোমার  সঙ্গে জুয়া খেলব, তবে গুনাহ মাপের জন্য তার সদকা করা উচিত।’ অতএব জুয়া সম্পর্কে শুধু কথা বললেই  যদি সদকা বা কাফফারা দিতে হয়, তবে জুয়া খেললে কী পরিণতি হতে পারে ভেবে দেখুন তো! (চলবে...)

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে