.ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪০

মঈনকে ওসামা বলেছিল অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার

 প্রকাশিত: ১৭:৫৪ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৭:৫৪ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলী অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের আচরণে তীব্র অভিব্যক্তি প্রকাশ করেছেন। তিনি দাবি করেন, ২০১৫ সালে প্রথমবার অ্যাশেজ খেলতে গিয়ে জাতিগত বিদ্রুপের শিকার হয়েছিলেন তিনি।

ইংলিশ পত্রিকা ‘দ্য টাইমস’এ প্রকাশিত এক কলামে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মঈন আলী। ঘটনাটি মূলত, ২০১৫ সালে কার্ডিফ টেস্টে। সে ম্যাচে ৭৭ রানের পাশাপাশি পাঁচ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডকে ১৬৯ রানে জয় পেতে ভূমিকা রাখেন এই অলরাউন্ডার। 

মঈন বলেন, একজন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার আমাকে ফিল্ডিংয়ের সময় ডাক দেয় এবং বলে এটা (বল) ধরো ওসামা। আমি প্রথমত কানকে বিশ্বাসই করতে পারিনি। আমি লাল হয়ে পড়েছিলাম। ক্রিকেট মাঠে আমি কখনোই এতো রাগান্বিত হইনি। পরে ঘটনাটি কয়েকজনকে বলি। আমি ভেবেছিলাম ট্রেভর বেলিস (ইংল্যান্ড কোচ) এই প্রসঙ্গে ড্যারেন লেহম্যানের সঙ্গে কথা বলবে। লেহম্যান সেই খেলোয়াড়কে এ প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করলে সে অস্বীকার করে। ওই খেলোয়াড় দাবি করে, সে বলেছিল এটা ধরো পার্ট-টাইমার। এমন ডাহা মিথ্যা শোনার পর আমি হেসে দিয়েছিলাম। পুরো সিরিজে এটা আমাকে রাগান্বিত করেছিল। 

মঈনের এই দাবিকে বেশ সতর্কভাবেই গ্রহণ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। আর এ ব্যাপারে ইসিবি’র (ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড) সঙ্গে বসবে বলে জানিয়েছে সিএ। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, খেলোয়াড়দের আচরণগত বিষয়গুলো নিয়ে তারা পরিষ্কার ধারণা তৈরি করতে চান। বিশেষত, এগুলো আমাদের দেশকে উপস্থাপন করে। আমরা বিষয়টিকে বেশ ভালভাবেই নিচ্ছি। ইসিবি এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে এব্যাপারে আলোচনা করবো। যতদ্রুত সম্ভব এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান পরিষ্কার করা হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ/এমআরকে