ভাসমান ফুলের চারার হাট

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৬ ১৪২৬,   ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

ভাসমান ফুলের চারার হাট

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১০:২২ ১১ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১০:২৭ ১১ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জমাদ্দার হাটে সাপ্তাহিক ভাসমান ফুলের চারার হাট জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

উপজেলার বিশখালী নদীর শাখা জমাদ্দার হাট বাড়ানী খালের মোহনায় ভাসমান নৌকায় বসা এ হাটে সপ্তাহের রোববার ও বুধবারে হাজার হাজার টাকার ফুলের চারা বিক্রি হয়।

পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন জাতের ফুল গাছের চারা এখান হতে ফুল শখের ফুল প্রেমী ও পাইকারী ক্রেতারা ফুলের চারা সংগ্রহ করেন। স্বরূকাঠি থেকে ভাসমান ফুল বিক্রেতা মো. ইউনুচ মিয়া জানান, স্বরূপকাঠির প্রত্যন্ত এলাকা হতে এ মৌসুমে ফুল সমেত চারা কিনে উপকূলীয় হাট বাজারে খুচরা বিক্রয় করে আসছেন। জমাদ্দার হাটে নৌকায় করে এখন সপ্তাহের দুই দিনে হাট বসায় এখানে নিয়মিত আসেন তিনি। 

তিনি জানান, প্রতি সপ্তাহের দুই হাটে এ ভাসমান বাজাওে হাজার হাজার টাকার ফুল চারা বিক্রয় হয়। প্রতিটি ফুলের চারা ৩০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রয় হয়। প্রতিটি চারা পলিথিন প্যাকেটে প্রক্রিয়াজাত করা। ফলে চারা মাটি ক্ষয় হওয়ার ও সম্ভাবনা থাকে না। ক্রেতা পরে ওই পলিথিন কেটে ফেলে টব অথবা মাটিতে অতি সহজেই রোপন করতে পারে। 

এ বিষয়ে উপজেলার দোগনা গ্রামের চাষী মো. মাইনুল ইসলাম বলেন, কাঁঠালিয়া উপজেলার দোগনা গ্রাম মূলত ফলদ ও বনজ নার্সারির জন্য বিখ্যাত। নার্সারির পাশাপাশি ফুলের চারার আবাদ হয়। এসব বাণিজ্যিকভাবেই উৎপাদন হয়ে আসছে। এ অঞ্চল হতে ফুলের চারা উপকূলীয় এলাকার হাট বাজারে এ মৌসুমে বিক্রয় হয়ে আসছে। এ শীত মৌসুমে ফুলের এ ভাসমান বাজার এখন বাণিজ্যিক বাজারে পরিণত হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে