Alexa ভাল্ব ও পেসমেকারের মূল্য নির্ধারণ

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১১ ১৪২৬,   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

ভাল্ব ও পেসমেকারের মূল্য নির্ধারণ

 প্রকাশিত: ১৭:২৫ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭  

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

মূল্য নির্ধারিত না থাকায় রোগীদের কাছ থেকে হার্টের ভাল্ব ও পেসমেকারের দাম একেক হাসপাতালে একেকরকম নেয়া হতো। রোগীদের সুবধার্থে এসব কার্ডিয়াক ডিভাইসের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে এক সভায় কার্ডিয়াক চিকিৎসায় ব্যবহৃত হার্টের ভাল্ব এবং পেসমেকারের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য নির্ধারণের বিষয়ে জানানো হয়।

 

সভায় জানানো হয়, ভাল্ব-পেসমেকার এখন থেকে সব হাসপাতালে একই মূল্যে বিক্রি হবে।

 

এতে বিভিন্ন কোম্পানির হার্টের ভাল্বের দাম চার হাজার আটশো টাকা থেকে ছাব্বিশ হাজার টাকা পর্যন্ত এবং পেসমেকার পাঁচ হাজার থেকে চার লাখ সাত হাজার টাকা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে। ওষুধ প্রশাসনের নির্ধারিত মূল্য তালিকা সরকারি-বেসরকারি সব হাসপাতালের দৃশ্যমান জায়গায় টাঙানোর নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

পাশাপাশি পেসমেকারে ব্যবহারের সময় (Tine Lead) এর পরিবর্তে (Screw in Lead) ব্যবহার করা হলে রোগীকে অতিরিক্ত ৫ হাজার টাকা প্রদান করতে হবে।

সভায় ওষুধ অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের কার্ডিয়াক সার্জন ও ইন্টারভেশন কার্ডিওলজিস্ট, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রতিনিধি বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি, বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির প্রতিনিধি ও মেডিকেল ডিভাইস অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধিসহ হার্টের ভাল্ব-পেসমেকার আমদানিকারকরা।

সভায় অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমরা সবার সঙ্গে কথা বলে আলোচনার মাধ্যেমে এসব মূল্য নির্ধারণ করেছি। মানুষ যেন হাসপাতালে এসবের দামের বিষয়ে প্রতারিত না হন সে কারণে এ ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আশা করি সবাই এই নিয়ম মেনে চলবেন। কোথাও কোনো অনিয়ম হলে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো। সব সময় এ বিষয়ে আমাদের মনিটরিং চলবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে