ভালো ফিনিশিং-ই পারে জয় এনে দিতে
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=107182 LIMIT 1

ঢাকা, বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২২ ১৪২৭,   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

ভালো ফিনিশিং-ই পারে জয় এনে দিতে

 প্রকাশিত: ২১:৪৬ ২৪ মে ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আরিফুল হক

যারা বাংলাদেশের ঘরোয়া লীগের খোঁজ রাখেন তাদের কাছে আরিফুল হক অতি পরিচিত একটি নাম। ২০১৭ সালে বিপিএলের পরেই মূলত তিনি নির্বাচকদের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হন। তবে এর আগেই তিনি পেরিয়ে এসেছেন দীর্ঘ পথ। ২০০৬-০৭ সেশনে বরিশাল বিভাগের হয়ে ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই নিয়মিত খেলে আসছেন। অনুর্ধ্ব ১৯ ও ২৩ দলের হয়ে খেলেছেন আরিফুল। মিডিয়াম পেস বোলিং এবং শেষের দিকে বড় শট খেলার সক্ষমতা তাকে আলাদাভাবে চিনিয়েছে। ২০১৮ সালে তিন ফরম্যাটেই অভিষেক হয় তার। ২ টেস্ট, ১ ওয়ানডে ও ৯টি টি-২০ খেলা আরিফুল হক এখনো কৃতিত্বের সঙ্গে খেলে যাচ্ছেন। 

আরিফুল হক, জাতীয় দলের অন্যতম অলরাউন্ডার। আসছে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ নিয়ে টাইগারদের সফলতা, সম্ভাবনা নিয়ে আমাদের জানিয়েছেন তার নিজস্ব অভিমত। 

তার সেই অভিমতের পুরোটাই তুলে ধরা হলো ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য।

আরিফুল হকের বিশ্বকাপ ভাবনা
তীরে এসে তরি ডুবানোর স্বভাবটা আমাদের অনেক আগে থেকেই। ছয়টা বড় ফাইনালে হারের কারণ কিন্তু ছিলো ফিনিশিং এর ব্যার্থতা।

প্রায় ম্যাচেই (যেসব আমরা হেরেছি) দেখা গেছে টপ অর্ডারের অবদানে জয় ছিলো আমাদের হাতের নাগালে। কিন্তু সেখান থেকেই ভালো ফিনিশিং এর অভাবে বার বার ম্যাচ থেকে ছিটকে যেতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

ব্যার্থতা এমন একটা শব্দ, যেটা কখনোই অজুহাতের চাদরে ঢাকা যায়না। বড় ম্যাচে বা বড় দলের সঙ্গে জিততে হলে আপনাকে কিন্তু পুরো ম্যাচেই কন্ট্রোলিং চেয়ারে থাকতে হবে। হাল ছেড়ে দেয়া কিংবা ইরেসপনসিবল হওয়াটা পেশাদারিত্বে বড় একটা বাঁধা।

আপাতদৃষ্টিতে এই বিশ্বকাপে অবশ্য ফেভারিট হয়েই খেলতে নামবে বাংলাদেশ দল। তবে ডমিনেশন থাকতে হবে অনেক বেশি।

বিশ্বকাপের মত আসরে কিন্তু সাকিব-তামিমদের উপর ভর করে থাকলে হবেনা। কন্ট্রিবিউশন থাকতে হবে প্রত্যেকের। সে লক্ষ্যে উপরের সাড়ির ব্যাটসম্যান যারা আছে, তাদের অবস্থানটা পরিষ্কার করতে হবে আগে।

ভুলে গেলে চলবেনা, ভারত ক্রিকেটে এতটা এগিয়েছে কারণ তাদের আছে ধোনীর মত কুল ফিনিশার। আমাদেরও অবশ্য রিয়াদ আছেন, সঙ্গে থাকতে পারে সৈকত কিংবা সাব্বিরও।

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে উইন্ডিজের বিপক্ষে সৈকত এবং রিয়াদ যে ফিনিশিংটা এনে দিয়েছেন, এমনই হওয়া চাই বিশ্বকাপেও। তবেই তো জয় আসবে, আর আমাদের নক আউটে খেলার  সম্ভাবনা তিব্রতর হবে।

আমি আশা করি, ফিনিশাররা দায়িত্বটা ভালোভাবেই সামলাবে। গুড লাক টিম বাংলাদেশ!

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি