ব্যস্ত আমন চাষিরা

ঢাকা, রোববার   ২৬ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৬,   ২০ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ব্যস্ত আমন চাষিরা

মাগুরা প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১২:০৪ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১২:০৪ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মাগুরায় ধান কাটা, মাড়াই, ঝাড়াই ও শুকানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন আমন চাষিরা। ফলন ভালো হওয়ায় হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে।

জেলা কৃষি অধিদফতর জানায়, এ বছর জেলায় আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৮ হাজার ৪৩০ হেক্টর জমিতে। মাগুরা সদর উপজেলায় ২২ হাজার ৩শ’ হেক্টর জমিতে, শ্রীপুর উপজেলায় ১১ হাজার ৭শ’ হেক্টর জমিতে শালিখা উপজেলায় ১৩ হাজার ৩শ’ ৬০ হেক্টর জমিতে, মোহাম্মদপুর উপজেলায় ১১ হাজার ৭শ’ হেক্টর জমিতে। তবে আমন ধানের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ১৭৫ হাজার ২৯০ মেট্রিক টন ধরা হলেও ফলন ভালো হওয়ায় তা লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে।

সদর উপজেলার হাজীপুর গ্রামের কৃষক মো. মোক্তর হোসেন বলেন, এ বছর বর্ষার শেষ সময়ে কিছুটা পানি হওয়ায় বোনা আমনের ভালো ফলন হয়েছে। এরইমধ্যে দুটি খেতের ধান কাটা শেষ হয়েছে। বিঘাপ্রতি ফলন পেয়েছি সাড়ে ২৮ মণ। বাজারে ধানের দাম ভালো না। মণপ্রতি ৬শ’ থেকে সাড়ে ৬শ’ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে । গেল বছর ৩ বিঘা জমিতে আমন আবাদ করেছিলাম। ভালো ফলন পাওয়ায় এবার ৪ বিঘায় আমন আবাদ করেছি। 

রামনগর গ্রামের আদর্শ কৃষক মো. সিরাজুল মণ্ডল জানান, তুলনামূলক কম খরচে ভালো ফলন হওয়ায় ৭ বিঘা জমিতে আমন আবাদ করছি। তবে কৃষক পর্যায়ে ধানের দাম কম হওয়ায় চিন্তায় আছি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. জাহিদুল আলম জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার ভালো ফলন পাবে কৃষকরা। তাই কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর উন্নতজাতের বোনা আমন আবাদে মাঠ পর্যায়ে কৃষকের কারিগরি সহযোগিতাসহ উদ্বুদ্ধকরণের কাজ নিয়মিত করেছি। তুলনামূলক কম খরচে ভালো ফলন পেয়ে লাভবান হওয়ায় কৃষকও বেশ আগ্রহের সঙ্গে এখন বোনা আমন আবাদ করছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর

Best Electronics