ব্যবসায়ীদের জন্য দরজা সব সময়ই খোলা: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৬,   ২১ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

ব্যবসায়ীদের জন্য দরজা সব সময়ই খোলা: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক :: staff-reporter

 প্রকাশিত: ১৪:১২ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৪:৫২ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে ব্যবসায়ীদের অনেক সুযোগ দেয়া হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ব্যবসায়ীদের জন্য আমার দরজা সব সময়ই খোলা রয়েছে। কোনো সমস্যা হলে আমার সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন। কোনো প্রটোকল নেই, কিছু নেই।

রোববার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের শীর্ষ রফতানিকারকদের জাতীয় রফতানি ট্রফি প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা কোন কোন পণ্য কোন রফতানি করলে ভালো হয়, সেটা বোঝার চেষ্টা করুন। সরকার সাধ্যমতো আপনাদের সহায়তা করবে। দেশের রফতানি বাড়াতে সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের যে সুযোগ আমরা তৈরি করে দিয়েছি সেটা কাজে লাগিয়ে আপনারা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। আগে বছরব্যাপী রফতানি নীতিমালা ছিলো। পরে সেটা দীর্ঘমেয়াদি করেছি।

তিনি বলেন, আমাদের সরকার ব্যবসা-বাণিজ্য করতে ক্ষমতায় আসে না। আর আমি তো ব্যবসাটা বুঝিও না। আমরা সরকারে এসে ব্যবসা-বাণিজ্যটা যাতে ব্যবসায়ীদের জন্য সহজ হয়, সেই ব্যবস্থাটাই করে দেই। সব সময় চাই, আমাদের দেশটা এগিয়ে যাক। তাছাড়া ক্ষমতায় আসার পর আমাদের প্রধান লক্ষ্য ছিলো অর্থনৈতিক উন্নয়ন। আশা করি, মানুষকে সেই উন্নয়ন দেখাতে পেরেছি। আমরা বিভিন্ন এলাকায় ইপিজেডসহ সারাদেশে একশ’টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করে দিয়েছি।

“এখন আর সময় বেশি নেই, সামনে ইলেকশন। তারপর কি হয় জানি না। তবুও যতটা সময় আছে, তার মধ্যেই আপনাদের সমস্যার সমাধান দেয়ার চেষ্টা করবো”, যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা আরো বলেন, উন্নয়নের ধারবাহিকতায় বাংলাদেশ আজ উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন করছে। বাংলাদেশের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট মজবুত। বিশ্বের কাছে আমরা এখন উন্নয়নের রোল মডেল। তবে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমাদেরকে আরো এগিয়ে যেতে হবে। বাংলাদেশকে আমরা বিশ্বের উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এই দক্ষিণ এশিয়ায় উন্নত দেশ হবে ‘বাংলাদেশ’।

অনুষ্ঠানে ৫৬টি প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ট্রফি প্রদান করেন।

এবার রফতানি খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ- এ তিন ক্যাটাগরিতে রফতানি ট্রফি দেয়া হয়। যার মধ্যে স্বর্ণপদক পেয়েছে ২৫ রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান। রৌপ্যপদক পেয়েছে ১৭টি প্রতিষ্ঠান এবং ব্রোঞ্জপদক পেয়েছে আরো ১৪টি প্রতিষ্ঠান। এতে প্রতিটি পদকে এক ভরি পরিমাণের স্বর্ণ, রূপা ও ব্রোঞ্জ দেয়া হয়। এসব পদকের পাশাপাশি বিজয়ীদের জন্য ছিলো সনদ।

অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ ছিলো- হোম ও স্পেশালাইজড টেক্সটাইল খাতের জাবের অ্যান্ড জোবায়ের ফ্যাব্রিক্স লিমিটেডের শীর্ষ রফতানি আয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ টানা পঞ্চমবারের মতো স্বর্ণ পদক অর্জন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআইএস/টিআরএইচ

Best Electronics