বোস্টনে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ

.ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১১ ১৪২৬,   ১৮ শা'বান ১৪৪০

বোস্টনে গ্যাস লাইন বিস্ফোরণ

 প্রকাশিত: ১৯:২৩ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৯:৪৬ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি: সংগৃহিত

ছবি: সংগৃহিত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে পর পর কয়েকটি গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে একজন মারা গেছেন। এ ছাড়া অারো দশজন আহত বলে স্থানীয় পুলিশ ও দমকল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

স্থানীয় পুলিশ বলেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লরেন্স টাউন শহরের কয়েক ডজন বাড়িতে ‘আগুন ও টানা বিস্ফোরণ’ ঘটার খবর তারা পেয়েছেন। ৭০টির মতো আবাসিক বাড়ি ও আরো প্রায় ২০টি বিভিন্ন ধরনের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটেছে। 

সেখান থেকে কয়েকশত অধিবাসীকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। নতুন করে দুর্ঘটনা এড়াতে গ্যাস ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের একজন প্রধান কর্মকর্তা মাইকেল ম্যান্সফিল্ড এটিকে ‘হতবাক হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা’ বলে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, ‘আমি ফায়ার সার্ভিসে আছি ৩৯ বছর। এমন কোনো ঘটনা আমার চাকরি জীবনে আগে কখনো দেখিনি’।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলেন, লরেন্স টাউনের বিভিন্ন বাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ৬০ থেকে ৮০ টি বিস্ফোরণ ঘটে।

ম্যান্সফিল্ড বলেন, তদন্তকারীরা মনে করছেন কলম্বিয়া গ্যাস লাইনের ‘মূল সংযোগে গ্যাসের অতিরিক্ত চাপে’র কারণে এসব বিস্ফোরণ ঘটেছে। শহরে যাদের বাড়িতে কলম্বিয়া গ্যাসের লাইন নেই, তাদেরও বাড়ি খালি করতে বলেছেন লরেন্সের মেয়র ড্যান রিভা।

গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানটির প্রধান প্রতিষ্ঠান নিসোর্স ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করে একটি বিবৃতি দিয়েছে। এখন পুলিশ ও অগ্নিনির্বাপক বাহিনীর লোকেরা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে গ্যাসের সংযোগ পরীক্ষা করছে।

বিস্ফোরণে নিহত ১৮ বছর বয়সী লিওনেল রন্ডোন দুর্ঘটনার সময় একটি গাড়ির মধ্যে ছিলেন। একটি বাড়িতে বিস্ফোরণের পর সেটির চিমনি ওই গাড়ির ওপর গিয়ে পড়লে তিনি নিহত হন। তার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে, সে সময় রন্ডোনের সঙ্গে তার আরও দুই বন্ধু ছিল। তারা বর্তমানে হাসপাতালে রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/এসজেড/আরআই