Alexa বৃষ্টির হাত ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে

ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ২ ১৪২৬,   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

বৃষ্টির হাত ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে

 প্রকাশিত: ২২:০৫ ২১ মার্চ ২০১৮  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সব শঙ্কা দূর করে ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে নাম লেখাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছিল। জিম্বাবুয়েতে অনুষ্ঠিত বাছাইপর্বেও তাদেরকে ঘিরে ছিল কতো অনিশ্চয়তা।

বুধবার স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে সুপার সিক্সে নিজেদের শেষ ম্যাচে জিততেই হতো ক্যারিবিয়দের। বৃষ্টি তাদের পক্ষে খেলে দিয়েছে শেষে। এমন ম্যাচে ১৯৮ রানে অল আউট হয়ে গিয়েছিলেন ক্রিস গেইলরা। স্কলট্যান্ড জিতলে তারাই পেত বিশ্বকাপের টিকিট।

দলটি ৩৫.২ ওভারে ৫ উইকেটে ১২৫ রান তুলে ফেলেছিল। কিন্তু এরপর নামে বৃষ্টি। সেই বৃষ্টির কারণে খেলা প-। ডাকওয়ার্থ-লুইস বৃষ্টি আইনে ৫ রানের জয় পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। একই সঙ্গে নিশ্চিত হয়েছে তাদের বিশ্বকাপ। অন্যদিকে ভালো সম্ভাবনা জাগিয়েও স্কটল্যান্ডের বিশ্বকাপ স্বপ্ন ধুয়ে গেল যেন বৃষ্টির জলে।

স্কটিশদের আক্ষেপই থেকে গেল, কারণ মাত্র ১৯৯ রান তাড়া করার ছিল। সেই পথে তাদের রান তোলার গতিটা একেবারেই সামান্য বেশি কিংবা একটা ছক্কার মারও যদি থাকতো বাড়তি! তারা ডাকওয়ার্থ-লুইস বৃষ্টি আইনে পার স্কোর থেকে ৫ রানে পেছনে পড়ে গেছে। তার মানে বৃষ্টিতে খেলা যখণ প- হলো তখন একটি ছক্কার সমান রানে বেশি থাকলেই তারা সরাসরি চলে যেত ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে।

ক্যারিবিয়ান বোলাররা তাই স্কটিশদের আটকে রেখে যা করেছেন স্বল্প পুঁজি হাতে নিয়ে তার জন্য নিজেদের বাহবা দিতেই পারেন। খেমার রোজ ও অ্যাশলে নার্স নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। জেসন হোল্ডার নেন ১ উইকেট।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে এর আগে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মাত্র ২ রানে ২ উইকেট হারায় তারা। ক্রিস গেইল ইনিংসের প্রথম বলেই শূন্য রানে ফিরেন। সাফিয়ান শরিফের বলে ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। ইনিংসের তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই ফের উইকেট তুলে নেন শরিফ। এবার আরেক ওপেনার সাই হোপ এলবিডব্লিউয়ের শিকার শূন্য রানে। তৃতীয় উইকেটে মারলন স্যামুয়েলস ও ইভিন লুইন ১২১ রানের জুটি গড়েন। তবে রান তোলার গতি ছিল স্লথ। লুইস ৬৬ ও স্যামুয়েল ৫১ রানে ফিরতেই ফের ধস নামে ক্যারিবিয় ব্যাটিং লাইনে। ৪৮.৪ ওভারে ১৯৮ রানে গুটিয়ে যায় দেশটি। স্কটিশদের পক্ষে শরিফ ও ব্র্যাড হুইল নেন সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট।

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি