Alexa বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

ঢাকা, শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫৯ ২০ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ২৩:০৭ ২০ আগস্ট ২০১৯

অভিযুক্ত প্রেমিক আশরাফুল। ফাইল ছবি

অভিযুক্ত প্রেমিক আশরাফুল। ফাইল ছবি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকের ধর্ষণে এক কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে কৌশলে গর্ভপাতের চেষ্টা করেন প্রেমিক।

অভিযুক্ত মো. আশরাফুল ইসলাম কবিরহাট উপজেলার জৈনাতপুরের আলমগীর হোসেনের ছেলে।

এ ঘটনায় মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর মা। তবে মামলার প্রায় তিনমাস পরও আশরাফুলকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। উল্টো সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ওই ছাত্রী ও তার মা।

মেয়েটির মা বলেন, আশরাফুল আমার মেয়ের ক্লাসমেট। সেই সূত্রে তাদের প্রেম। ২৬ মে এবং ৬ জুন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বসুরহাট পৌরসভার ভাড়া বাসায় নিয়ে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে আশরাফুল। বিষয়টি আমার বোনকে জানানোর পর পরীক্ষা করে দেখা যায় আমার মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা।

তিনি আরো বলেন, বিয়ের জন্য আশরাফুলের পরিবারকে জানালে তারা রাজি না হয়ে উল্টো হুমকি দেয়। আমি আশরাফুল ও তার বাবা-ভাইদের বিরুদ্ধে মামলা করি। এরপর থেকেই আশরাফুলের ভাইয়েরা ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে হুমকি দিচ্ছে। অথচ প্রায় তিনমাস হয়ে এলেও ধর্ষক আশরাফুলকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

কোম্পানীগঞ্জ থানার এসআই তাজুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত যুবককে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার বাড়ি কবিরহাট উপজেলায়। তাই কবিরহাট থানার সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর