Alexa বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম যাত্রা!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ২ ১৪২৬,   ১৭ সফর ১৪৪১

Akash

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম যাত্রা!

ফারজানা ববি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০৪ ১৬ মে ২০১৯   আপডেট: ১৬:৩৬ ১৬ মে ২০১৯

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের আসর ১৯৭৫ সাল থেকে শুরু হলেও বাংলাদেশকে ষষ্ঠ আসর পর্যন্ত দর্শক হয়েই কাটাতে হয়। অবশেষে আসে সেই বহুল আকাঙ্ক্ষিত সময়। ১৯৯৯ সালে সপ্তম আসরে প্রথমবারের মত বাংলাদেশের যাত্রা শুরু হয় বিশ্বকাপ ক্রিকেটে।

কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত ১৯৯৭ সালে ষষ্ঠ আইসিসি ট্রফির ফাইনালে কেনিয়াকে দুই উইকেটে হারিয়ে নতুন ইতিহাসের জন্ম দেয় টিম বাংলাদেশ। এই জয়ের মধ্যদিয়ে আইসিসির সপ্তম বিশ্বকাপ আসরে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে বাংলাদেশ।

ঐ আসরে স্কটল্যান্ড, পাকিস্তানকে হারিয়ে আইসিসির পূর্ণ সদস্যপদ লাভের পথে অনেকখানি এগিয়ে যায় টিম বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০০ সালের ২৬ জুন আইসিসির পূর্ণ সদস্যপদ লাভ করে লাল-সবুজের দল।

১৯৯৯ সালের আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ১৪ মে থেকে ২০ জুন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। সেবার প্রথম মূল আয়োজকের পাশাপাশি সহযোগী আয়োজক দেশের তালিকা বড় ছিল। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের পাশাপাশি আয়ারল্যান্ড, ওয়েলস, স্কটল্যান্ড এবং নেদারল্যান্ডস সহ-আয়োজকের মর্যাদা লাভ করে।

অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে, কেনিয়া, স্কটল্যান্ড এবং বাংলাদেশসহ বিশ্বের মোট ১২টি জাতীয় দল এই খেলায় অংশগ্রহণ করে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের এক অবিস্মরণীয় দিন ছিল ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপ। বহু বছরের প্রতীক্ষার ফল অবশেষে আসে সপ্তম বিশ্বকাপের আসরে। শুধুমাত্র অংশগ্রহণই নয়, ঐ আসরে অন্যতম হট ফেবারিট ফাইনালিস্ট পাকিস্তানের মত দলকে হারিয়ে অনন্য নজির গড়ে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে পুরো জাতির দৃষ্টি কাড়ে টাইগাররা।

স্বাভাবিকভাবে বাংলাদেশ তাদের সঙ্গে একই ছন্দে লড়াই করার যোগ্য তখনো হয়ে ওঠেনি। কিন্তু বি গ্রুপের ম্যাচে অসাধ্য সাধন করে বসে টাইগাররা। পাকিস্তানের মত শক্ত পরাশক্তিকে ৬২ রানে হারিয়ে অঘটন ঘটায় লাল-সবুজরা। ম্যাচটিতে খালেদ মাহমুদ নজরকাড়া বোলিং করেন। মূলত তার বোলিং তোপে হার নিয়ে শেষ পর্যন্ত মাঠ ছাড়ে ওয়াসিম আকরামের দল।

এর আগে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে স্কটল্যান্ডকে ২২ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপের আসরে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছিল টাইগাররা। পাঁচ ম্যাচের তিনটিতে পরাজয় ও দুই ম্যাচে জয় নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে যদিও বিদায় নেয় বাংলাদেশ। কিন্তু বিশ্ব আসর থেকে একেবারে খালি হাতে ফিরতে হয়নি টাইগারদের।

ওই আসরে ইংল্যান্ডের লর্ডসে অনুষ্ঠিত ফাইনালে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়া। সহজেই পাকিস্তানকে ৮ উইকেটে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ের স্বাদ পায় অজিরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস