বিমান ছিনতাইয়ের ভূয়া হুমকি, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ব্যবসায়ীর

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

বিমান ছিনতাইয়ের ভূয়া হুমকি, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ব্যবসায়ীর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:০৫ ১৩ জুন ২০১৯   আপডেট: ১৩:০৭ ১৩ জুন ২০১৯

ভারতে বিমান ছিনতাইয়ের ভূয়া হূমকি দেয়ার অপরাধে এক ব্যবসায়ীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ৫ কোটি রুপি জরিমানাও করা হয়েছে তাকে।

মঙ্গলবার দেশটির এক আদালত বিরজু সাল্লা নামক এই ব্যবসায়ীকে এ শাস্তি প্রদাণ করে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

২০১৭ সালে দিল্লি থেকে মুম্বাইগামী জেট এয়ারওয়েজের একটি বিমানের টয়লেটে বিমান ছিনতাইয়ের হুমকি দিয়ে চিঠি রেখে ভীতি সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। 

চিঠিতে বলা হয়েছিলো বিমানে ১২ জন ছিনতাইকারী ও বেশকিছু বোমা আছে। তার দাবি ছিলো বিমান যেন পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে চলে যায়। আহমেদাবাদে জরুরি অবতরণের পর বিরজু সাল্লাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।  

তিনি কেন এই কাজ করেছেন জিজ্ঞাসা করা হলে জানান, জেট এয়ারওয়েজে তার প্রেমিকা কেবিন ক্রু হিসেবে কর্মরত আছেন। বিমানটি দিল্লি কার্যক্রম বন্ধ করে দিলে তার প্রেমিকাকে নিয়ে মুম্বাইয়ে বসবাস শুরু করতে পারবেন তিনি। 

সেসময় ওিই নারী কেবিন ক্রুর সঙ্গে প্রেম ছিলো বিরজুর। নারীকে মুম্বাইয়ে তার সঙ্গে বসবাসের প্রস্তাব দিলে তিনি রাজি হননি। তাই এই পন্থা অবলম্বন করেন বিরজু। তিনি আশা করেছিলেন এতে তার চাকরি চলে যাবে এবং মুম্বাই যেতে রাজি হবে।

ভারতের নতুন গঠিত ছিনতাই বিরোধী আইনের আওতায় প্রথমবারের মতো কাউকে সাজা দেওয়া হলো। এই আইনে সর্বনিম্ন সাজা যাবজ্জীবন এবং সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড। তদন্তে ওই হুমকি দেওয়া চিঠির ব্যাপারে স্বীকার করেন বিরজু।

একজন তদন্তকারী জানান, সাল্লা ছিনতাই চেষ্টা না করলেও হুমকিমূলক চিঠিও ভারতীয় আইন অনুযায়ী ছিনতাই চেষ্টার সামিল। তার দেওয়া জরিমানা থেকে বিমানচালকরা ১ লাখ রুপি, প্রত্যেক কেবিন ক্রু ৫০ হাজার রুপি এবং প্রত্যেক যাত্রী ২৫ হাজার রুপি করে ক্ষতিপূরণ পাবেন।

সাল্লার আইনজীবী রোহিদ ভার্মা বলেন, তারা এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী