Alexa বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পাচ্ছেন নোবিপ্রবির ৭৯ শিক্ষার্থী

ঢাকা, রোববার   ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ১১ ১৪২৬,   ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পাচ্ছেন নোবিপ্রবির ৭৯ শিক্ষার্থী

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:১৭ ২৫ জানুয়ারি ২০২০  

ছবিঃ ডেইলি বাংলাদেশ

ছবিঃ ডেইলি বাংলাদেশ

জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পাচ্ছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ১১টি বিভাগের ৭৯ শিক্ষার্থী। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো. রবিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভৌতবিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান ও চিকিৎসাবিজ্ঞান এবং খাদ্য ও কৃষিবিজ্ঞান- এই তিন ক্যাটাগরিতে ফেলোশিপ পাচ্ছেন সারাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩২০০ জন শিক্ষার্থী। উল্লিখিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভৌতবিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে মোট ৭৭৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে নোবিপ্রবির ২৪ জন, খাদ্য ও কৃষি বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ১৭৮২ শিক্ষার্থীর মধ্যে নোবিপ্রবির ১৭জন এবং জীব ও চিকিৎসাবিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ৫৯২ শিক্ষার্থীর মধ্যে নোবিপ্রবির ৩৮  শিক্ষার্থী উক্ত ফেলোশিপ পেলেন। 

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে নোবিপ্রবি থেকে বিজ্ঞানের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ফেলোশিপ প্রাপ্ত ৭৯ শিক্ষার্থীরা হলেন- ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন সায়েন্স বিভাগের মো.রাশেদুল হক, নুসরাত জাহান প্রিয়া, মো. মওদুদ আহমেদ, মো. মহসিন।

ফার্মেসি বিভাগের দীপ্তি রাণী ভৌমিক,মো. মাহমুদুর রহমান, আফসানা আক্তার, নুসরাত জাহান, নাহিদা আফরোজ, মোবাশ্বেরা বেগম, নাহিদা আরজু, আরিফুর রহমান, মো. সাদ্দাম হোসেন, সাজেদুল ইসলাম, মো. জহিরুল ইসলাম।

কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের শারমিন আক্তার মিলু। এবং ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড কমিউনিকেশন ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের জেসমিন আক্তার। এপ্লাইড ম্যাথ বিভাগের-মো. আহসান হাবিব, নফাইজা ইয়াসমিন। এবং একুয়াটিক রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের তাসমিয়া তাবাসসুম তিয়ানা।

অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সুলতানা রাজিয়া, মো. আতাউল ইসলাম, আসমা আক্তার, বন্নি তালুকদার, মরিয়ম আক্তার মুক্তা, আফরোজা আক্তার,গালিব আহমেদ, ফাহিম আহমেদ খান, মো. হাজবিউর রহমান, মো. আসফাকুর রহমান সিদ্দিকি ও ফারজানা আবদারি।

বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের আনিসুর রহমান, মো. ইয়াসিন মিয়া, মুহাম্মদ তাওহিদ, মো. মাইন উদ্দিন, ফারজানা আক্তার,শাহেদা তামান্না,জাবুন্নেসা খানম, সায়মন আক্তার, সাবরিনা বিনতে শোয়েব, আনুজা সাহা, শামিমা নাসরিন সুরভী,ইয়াসমিন আক্তার, তাহমিদা নূর তাসফিয়া,ইতু রাণী পাল, সালমা আক্তার আশা, মারজানা আক্তার, সুলতানা সাবরিনা রহমান।

ফুড টেকনোলজি অ্যান্ড নিউট্রিশন সায়েন্স বিভাগের স্মর্ণিমা ঘোষ জুই, সাবরিনা মমতাজ, লিংকন চন্দ্র শীল, তাহমিনা আক্তার, মোহাম্মদ আসাদুল হাবিব, মো. হাবিবুর রহমান, নাহিয়ান রহমান, ফারিয়া শারমিন, সোনাক সাহা ও ময়ুরাক্ষি চৌধুরী।

এপ্লাইড কেমিস্ট্রি অ্যান্ড কেমিক্যাল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের-মির্জা নুসরাত সুইটি, উম্মে সাইফুন ফ্লোরা, জাহিদ হাসান,কানিজ ফাতেমা, ফারহানা আক্তার,উম্মে হাবিবা, চম্মা রানী সরকার, খায়রুন্নাহার নিপা, নুসরাত জাহান, সুষ্মিতা মল্লিক, মো.সাখাওয়াত হোসেন ভূঁইয়া, প্রিয়াম বড়ুয়া।

এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অ্যান্ড ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট- ওমর ফারুক, শিহাব আহমেদ শাহরিয়ার,সজিব আহমেদ, মাহিলা মমতাজ, মার্জিয়া মুফতি মিশু, নুসরাত জাহান বিপা, আফরা তারান্নুম, শারমিন ফারুক।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম