বিজ্ঞানীদের ফের সতর্কবার্তা ভিনগ্রহীদের ব্যাপারে!

ঢাকা, শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭,   ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

বিজ্ঞানীদের ফের সতর্কবার্তা ভিনগ্রহীদের ব্যাপারে!

 প্রকাশিত: ০৬:২৯ ২৫ মার্চ ২০১৮   আপডেট: ০৬:২৯ ২৫ মার্চ ২০১৮

ভিনগ্রহীদের পাঠানো বার্তার মধ্যেই লুকিয়ে থাকতে পারে পৃথিবীর জন্য বড় বিপদের বীজ। পৃথিবী থেকে হারিয়ে যেতে পারে মানব সভ্যতা। অসতর্ক হলেই বিপন্ন হতে পারে সভ্যতা!

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, বহির্বিশ্বে নানা রকমের সভ্যতা থাকতে পারে। হতেই পারে তাদের অনেকেই বন্ধুভাবাপন্ন। আবার শত্রুতার মনোভাব নিয়েও অনেকে যোগাযোগের চেষ্টা করতে পারে। তাই ভিনগ্রহীদের পক্ষ থেকে কোনো রকম সাড়া পেলে যেন ভালো করে ভেবে দেখা হয় খোলার আগে। এ ব্যাপারে কোনো ঝুঁকি নেওয়া উচিত হবে না।

এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস-এ প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ইন্টারস্টেলার কমিউনিকেশন নামের এক গবেষণাপত্রে এমনটাই জানিয়েছেন গবেষকরা। জার্মানির সোনবার্গ অবজার্ভেটরির বিজ্ঞানী মাইকেল হিপকে ও হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চশক্তির পদার্থবিদ্যার অধ্যাপক জন জে লিয়েনার্ড যৌথভাবে এই বিষযে গবেষণা চালিয়ে গবেষণাপত্রটি রচনা করেছেন।

তাদের মতে, ভিনগ্রহীদের পাঠানো জটিল বার্তাকে পড়ার জন্য কম্পিউটার ছাড়া গতি নেই। সেক্ষেত্রে তেমন কোনো মেসেজকে খুলতে গেলে টেকনিক্যাল ঝুঁকি তো থাকছেই। কোনো বিপজ্জনক ভাইরাস পাঠিয়ে পৃথিবীর সমস্ত কম্পিউটারকে ধ্বংস করে টেলি যোগাযাগকে মুহূর্তে বড়সড় ধাক্কা দিতেই পারে ভিনগ্রহের শত্রুবেশি ইটিরা।

ওই গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, হয়তো এত কিছু না করে খুব সরল বার্তা পাঠানো হল- আমরা তোমাদের সূর্যকে আগামীকালই ধ্বংস করে দেব। তারা সত্যিই তেমন কিছু করতে পারুক বা না পারুক, এতে যে পৃথিবীব্যাপী ভয়াবহ আতঙ্ক তৈরি হবে, তাতে সন্দেহ নেই। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন ঝুঁকির সম্ভাবনা হয়তো কম, তবে তা শূন্য নয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/ আরএ