Alexa বিকাশ-রকেট-নগদে ব্যালেন্স জানার খরচ কে দেবে?

ঢাকা, সোমবার   ২২ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৭ ১৪২৬,   ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪০

বিকাশ-রকেট-নগদে ব্যালেন্স জানার খরচ কে দেবে?

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৮:৩৫ ১৮ জুন ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিকাশ, রকেট, নগদসহ সব মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স এতদিন বিনা মূল্যে জানা গেলেও এখন থেকে ৪০ পয়সা খরচ করতে হবে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) বৃহস্পতিবার এই সংক্রান্ত এক নিদের্শনা জারি করেছে, যা রোববার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। এই খরচ কে দেবে, গ্রাহক না অপারেটর? এ নিয়ে শোনা যাচ্ছে এ ধরনের নানা প্রশ্ন।

বর্তমানে প্রতি ১০০ টাকা লেনদেনে গ্রাহকের কাছ থেকে ১ টাকা ৮৫ পয়সা নেয়া হয়। এর ৭৭ শতাংশ এজেন্ট, ৭ শতাংশ মোবাইল ফোন অপারেটর আর বাকি ১৬ শতাংশ পায় এমএফএস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। মানে মোবাইল ফোন অপারেটরদের দেয়া চার্জ এমএফএসগুলো গ্রাহকের কাছ থেকেই কেটে নিচ্ছে।

বিটিআরসির নতুন নির্দেশনা অনুয়ায়ী, প্রতিবার লেনদেন, ব্যালেন্স চেক বা স্টেটমেন্ট নেয়াসহ নানা ধরণের কাজকে একেকটি সেশন ধরা হবে। প্রতিটি সেশনের সময় হবে ৯০ সেকেন্ড। এই সময়ের একেকটি সেশনের জন্যে মোবাইল ফোন অপারেটরদেরকে ৮৫ পয়সা করে দিতে হবে। একেকটি সেশনের মধ্যে দুটি এসএমএসও থাকবে। যেখানে ব্যালেন্স চেকের এসএমসের জন্য চার্জ হবে ৪০ পয়সা।

এ প্রসঙ্গে বিকাশের হেড অব কর্পোরেট কমিউনিকেশনস শামসুদ্দিন হায়দার ডালিম বলেন, বিষয়টি শুনেছি তবে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্দেশনাটি এখনো পাননি। আর চার্জ কে দেবে তা নির্ভর করবে নির্দেশনা কীভাবে কার্যকর হয় তার উপর।

এমএফএস প্রসঙ্গে রবির চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি কর্মকর্তা সাহেদ আলম বলেন, এই চার্জ মোবাইল অপারেটরকে প্রদান করবে সংশ্লিষ্ট এমএফএস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান, গ্রাহকদের ওপর এ চার্জ বর্তাবে না।

দেশে ১৬টি ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে লেনদেন করার অনুমোদন রয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব অনুয়ায়ী, মার্চের শেষে তিন কোটি ২৪ লাখ কার্যকর সংযোগ ছিল। যেখানে মোট অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ছিল ছয় কোটি ৭৫ লাখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে