বিকাশের সিম ক্লোন করে টাকা হাতিয়ে নিতো প্রতারকচক্রটি

ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

বিকাশের সিম ক্লোন করে টাকা হাতিয়ে নিতো প্রতারকচক্রটি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:১১ ১৩ মার্চ ২০২০  

প্রতারণার সরঞ্জমসহ গ্রেফতার সোহেল

প্রতারণার সরঞ্জমসহ গ্রেফতার সোহেল

উন্নত প্রযুক্তির ডিভাইস ব্যবহার করে সিম ক্লোনের মাধ্যমে প্রতারণা করে ২০১৭ সাল থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিতো একটি প্রতারক চক্র। গতকাল বৃহস্পতিবার অভিযান চালিয়ে এ চক্রের মূলহোতা মো. সোহেল আহম্মদকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

শুক্রবার টিকাটুলি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানান র‍্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রকিবুল হাসান। 

তিনি বলেন,গতকাল দিবাগত রাতে রাজধানীর মিরপুর-১ এর ১৯ নম্বর রোডের ৩৩ নম্বর বাসা থেকে বিভিন্ন সরঞ্জামসহ বিকাশ জালিয়াত চক্রের মূলহোতা মো. সোহেল আহম্মদকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে চার্জারসহ একটি ল্যাপটপ, একটি মাল্টিসিম গেটওয়ে, একটি সিগন্যাল বুস্টার, তিনটি মডেম ,বিপুল পরিমাণ সিমকার্ড ও অন্যান্য সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়। এসব মালামাল জালিয়াতির কাজে ব্যবহার করতো প্রতারক চক্র।

গ্রেফতারের পর শুক্রবার টিকাটুলি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন র‍্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রকিবুল হাসান- ডেইলি বাংলাদেশলেফটেন্যান্ট কর্নেল রকিবুল হাসান বলেন, মাল্টিসিম গেটওয়ে এবং উন্নত প্রযুক্তির বিভিন্ন ডিভাইস দ্বারা ক্লোন করে বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করতো গ্রেফতার ব্যক্তি।

মোবাইল ব্যাংকিং খাতে প্রতারণা সম্পর্কে তিনি বলেন, সম্প্রতি বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারীদের সঙ্গে প্রতারণা ও জালিয়াতির অভিযোগ উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। তারা প্রতিদিনই বিভিন্ন মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহারকারীদের সঙ্গে প্রতারণা করছে বলে অভিযোগ আসে র‌্যাবের কাছে।

উদ্ধারকৃত মালামাল- ডেইলি বাংলাদেশপ্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার সোহেল র‍্যাবকে জানিয়েছেন, ২০১৭ সাল থেকে তিনি এ প্রতারণার কাজে জড়িত। প্রতারণার মাধ্যমে এখন পর্যন্ত বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, সোহেল তার চক্রের আরো ৪ থেকে ৫ জনের নাম বলেছেন। তাদের নাম তদন্তের স্বার্থে এখন বলা যাবে না। আমরা অতি শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবো।

গ্রেফতার আসামির বিরুদ্ধ আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান র‍্যাবের এ কর্মকর্তা।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/এমআরকে