বিএনপি সাম্প্রদায়িক রাজনীতির পৃষ্ঠপোষক: কাদের

ঢাকা, রোববার   ২৯ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৫ ১৪২৬,   ০৪ শা'বান ১৪৪১

Akash

বিএনপি সাম্প্রদায়িক রাজনীতির পৃষ্ঠপোষক: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২২ ২৬ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বিএনপি জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িক রাজনীতির পৃষ্ঠপোষক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার রাজধানীর রমনা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে আওয়ামী মটর চালক শ্রমিক লীগের ত্রিবার্ষিক দ্বিতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। 

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নামক অপরাজনীতির হোতা যেন আর কখনো ক্ষমতায় না আসতে পারে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। তিনি বলেন, এ অপশক্তি জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িক রাজনীতির পৃষ্ঠপোষক। এরাই বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক অপরাজনীতির সূচনা করেছে। বাংলাদেশের মানুষ এদের নেতিবাচক রাজনীতিকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এ অপশক্তি (বিএনপি) যদি আবার ক্ষমতায় আসতে পারে তাহলে আবারো অন্ধকারে তলিয়ে যাবে বাংলাদেশ। তারা রক্তস্রোত বইয়ে দেবে। দেশ আবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হবে। এ দলকে জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা এখন ষড়যন্ত্র করছে।

বিএনপির ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, চক্রান্তের চোরাপথ দিয়ে ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করছে দলটি। এদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

কমিটি ঘোষণার আগে প্রথম অধিবেশনে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী মটর চালক লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার হাতে। কাজেই এ প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ড ও নেতৃবৃন্দ সম্পর্কে আমার জানার সুযোগ হয়েছে। দুর্দিনে আন্দোলন, সংগ্রামে এ সংগঠনের নেতাকর্মীরা রাজপথে ছিলো। বিএনপি-জামায়াতের আগুন সন্ত্রাসের মোকাবিলা করতে গিয়ে যে সব মটরচালকরা জীবন দিয়েছেন। আজকে আমি তাদের স্মরণ করছি। অনেকে পঙ্গু হয়েছেন, অনেকে চিরদিনের জন্য পথে বসে গেছেন। বিএনপির জ্বালাও-পোড়াও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সেদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়েছিল মটর চালকেরা এবং গণতান্ত্রিক সরকারের প্রধান শেখ হাসিনাকে সমর্থন দিয়েছিলো। 

মটর চালক লীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারা শেখ হাসিনার ও বঙ্গবন্ধুর নামটি ব্যবহার করছেন। শেখ হাসিনার নামে এ সংগঠন পরিচালনা করছেন। সেজন্য আমি বলব- শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধুর সেই আদর্শই আপনাদের মেনে চলতে হবে। সততার জন্য শেখ হাসিনা সারা বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছেন। দল করলে দলের নিয়ম মেনে চলতে হবে। চালকের নিয়ম-শৃঙ্খলা যারা মানবে না তাদের আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো সংগঠন করার অধিকার নেই।

আমরা যেন এ সংগঠনের নামে কোনো চাঁদাবাজি-দখলবাজির অভিযোগ না পাই। কোনো অপকর্মের অভিযোগ পেলে সঙ্গে সঙ্গে শাস্তি হবে বলে সতর্ক করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নাম যেখানে আছে সেখানে দুর্নাম থাকতে পারে না। আপনাদের এটি মেনে চলা উচিত। আপনাদেরকে সবক্ষেত্রে শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে।

মটর চালক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে উপস্থিতিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুরসহ মটর চালক লীগের নেতাকর্মীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/এসআই