বিএনপির উস্কানিমূলক বক্তব্যে ইসির নির্দেশনা চায় আওয়ামী লীগ

ঢাকা, রোববার   ১৯ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৬,   ১৪ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

বিএনপির উস্কানিমূলক বক্তব্যে ইসির নির্দেশনা চায় আওয়ামী লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ২০:১৭ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৪:২৫ ৬ মার্চ ২০১৯

এইচ টি ইমাম। ছবি: সংগৃহীত

এইচ টি ইমাম। ছবি: সংগৃহীত

দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে আসার পর বিএনপির পক্ষ থেকে প্রশাসনে রদবদলের দাবি উত্থাপনকে অবান্তর বলেই মনে করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্ট করতেই এ ধরনের উদ্ভট দাবি ও বিভিন্ন উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপি নেতারা। 

রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সঙ্গে দু’ঘন্টার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম। 

প্রশাসনে রদবদল নিয়ে বিএনপির দাবির প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, বিএনপি প্রশাসনের রদবদলের নামে যে দাবি করেছে, তা অবান্তর। এটি করতে হলে পুরো সরকারকেই উলট-পালট করতে হয়। তারা তো মেনেই নিয়েছে, এই প্রশাসনের অধীনে তারা নির্বাচন করবে। এখন তো এ প্রশ্ন অমূলক। 

এদিকে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন বলে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দিয়েছেন বলেও জানান এইচ টি ইমাম। 

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম সৈয়দপুর বিমানবন্দরে সমাবেশ করেছেন, যেটি নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এখন তো সমাবেশ করার কথা না। আমরা চাই লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড, যে কথা বলছি- সেটা মনে প্রাণে আমরা বিশ্বাস করি। 

অভিযোগের প্রেক্ষিতে কমিশন কি বলেছে- এমন প্রশ্নের জবাবে এইচ টি ইমাম বলেন- তারা ব্যবস্থা নেবেন বলেছেন। আমরা সবসময় বলছি- আইন সবার জন্য সমান। বিএনপির কোনো কোনো নেতা নানা ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন। তারা বলছেন, নির্বাচন কমিশন ৩০ ডিসেম্বরের পর কোথায় থাকে, আমরা দেখবো। কিংবা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ কোথায় থাকে আমরা দেখবো। তার মানে কী? এগুলো নির্বাচন কমিশনের কাছে বলেছি। এ বিষয়ে কমিশনকে সুস্পষ্টভাবে নির্দেশনা দিতে বলেছি।

এছাড়া সবার জন্য সমান সুযোগ নেই- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের এমন অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, মওদুদ আহমদ বললেই কী বেদবাক্য হয়ে গেল? তারা দিনরাত ঝাড়া মিথ্যা কথা বলেন। মওদুদ আহমদ দশ বছর আগে, বিশ বছর আগে কী বলেছেন, এখন কী বললেন? 

এইচ টি ইমাম বলেন, রাষ্ট্রযন্ত্র তথা সরকার এবং নির্বাচন কমিশনকে লক্ষ্য করে বিভিন্নভাবে চারদিক থেকে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। এগুলো বন্ধ করা উচিত। 

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ সবার জন্য সমান সুযোগ চায়। আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে, সবার জন্য স্বচ্ছ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে। 

তিনি আরো বলেন, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক যারা আসবেন, তাদের নির্বাচনী আইন এবং পর্যবেক্ষক নীতিমালা কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। দেশে একশ’ ১৮টি নিবন্ধিত পর্যবেক্ষক সংস্থা রয়েছে। বিদেশ থেকেও যদি এ রকম পর্যবেক্ষক আসতে থাকে, তাহলে তাদের নিরাপত্তা দিতেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনেক ব্যস্ত থাকতে হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেবি/এসআইএস/

Best Electronics