বাবা প্রবাসে, বিছানায় শিশুর মরদেহ রেখে মা উধাও

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭,   ০২ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

বাবা প্রবাসে, বিছানায় শিশুর মরদেহ রেখে মা উধাও

নওগাঁ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪৮ ২৮ মার্চ ২০২০  

মৃত মেয়ের ছবি

মৃত মেয়ের ছবি

সংসারের আর্থিক সচ্ছলতার জন্য প্রবাস জীবন কাটাচ্ছেন বাবা। বাড়িতে থাকেন মা, স্ত্রী ও শিশু মেয়ে। কিন্তু হঠাৎ ঘটে গেল হৃদয়বিদারক মর্মান্তিক একটি ঘটনা। বিছানায় প্রবাসীর ছোট্ট শিশু মেয়ের নিথর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেল। একই সঙ্গে পাওয়া গেল সিগারেটের প্যাকেট ও প্যাকেটের ভেতরে ৫০ টাকা। আর শিশুটির মা হয়ে গেলেন উধাও।

শুক্রবার রাতে নওগাঁ সদরের শিকারপুর ইউপির রঘুনাথপুর সরদারপাড়ায় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। ওই শিশুকে পরকীয়ার জেরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

নিহত সুমাইয়া আক্তার ওই গ্রামের প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার রাতে খাওয়া শেষে ঘুমিয়ে পড়েন মা তামান্না বেগম ও মেয়ে সুমাইয়া আক্তার। শনিবার সকালে মা ও মেয়েকে ডাকতে যান সুমাইয়ার দাদি। অনেক ডাকাডাকির পর দরজা না খোলায় জোরে ধাক্কা দেন তিনি। দরজা খোলার পর সুমাইয়াকে খাটের ওপর ঘুমানো অবস্থায় দেখতে পান। তবে মা তামান্নাকে দেখা যায়নি। সুমাইয়াকে ডাকার পর কোনো সাড়া না পেয়ে ধাক্কা দেন দাদি। এতে কোনো নড়াচড়া না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

এদিকে বিছানায় সুমাইয়ার মরদেহের পাশাপাশি সিগারেটের প্যাকেট ও প্যাকেটের ভেতরে ৫০ টাকা পাওয়া গেছে বলে দাবি স্থানীয়দের। অন্যদিকে মা তামান্নাকে বাড়ি বা আশপাশের এলাকায় পাওয়া যাচ্ছে না।

নওগাঁ সদর থানার ওসি সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, খবর পেয়ে শিশুর মরদেহটি উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হতে পারে। তবুও ময়নাতদন্তের পর হত্যার বিষয়টি জানা যাবে। ঘটনাটি পরকীয়া থেকে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ