Alexa বাবাকে রাজাকার বলে খাটো করা যাবে না: আগুন

ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৪ ১৪২৬,   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

বাবাকে রাজাকার বলে খাটো করা যাবে না: আগুন

 প্রকাশিত: ১৬:৪৫ ১৯ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ১৭:০৬ ১৯ অক্টোবর ২০১৭

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

`খান আতা রাজাকার` ইস্যুতে আলোচনা থামতেই চাইছে না। বাংলা চলচ্চিত্রের খ্যাতিমান পরিচালক ও অভিনেতা খান আতাউর রহমান।

সম্প্রতি তাকে `রাজাকার` বলে মন্তব্য করেন নাট্যজন ও মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু। নিউইয়র্কের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, খান আতাউর রহমানের `আবার তোরা মানুষ হ’ এটাতো নেগেটিভ ছবি। মুক্তিযোদ্ধাদের বলছে আবার তোরা মানুষ হ। খান আতা রাজাকার, আমি না হলে তিনি বাঁচতো না।

নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর বক্তব্যের প্রতিবাদে ১৯ অক্টোবর দুপুরে এফডিসিতে সংবাদ সম্মেলন করে অভিনেতা ফারুকের নেতৃত্বাধীন সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার। এতে উপস্থিত ছিলেন খান আতাউর রহমানের সন্তান কণ্ঠশিল্পী আগুন, নির্মাতা আমজাদ হোসেন, সিবি জামান, আজিজুর রহমান, মুশফিকুর রহমান গুলজারসহ অনেকে।

‘দুঃখের কিছু কথা বলতে চাই’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে আগুন বলেন, এভাবে গুণী মানুষদের ছোট করতে নেই। আমার বাবাকে দেশের সবাই চেনেন ও জানেন। আজকে হঠাৎ তাকে রাজাকার বলে দিলেই তাকে খাটো করা যাবে না।

আমি যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষ হয়ে থাকি তবে অবশ্যই এই যুদ্ধে আমি জয়ী হবোই। প্রমাণ হবেই আমার বাবা রাজাকার ছিলেন না। আমার সঙ্গে সারা দেশবাসী রয়েছেন। সবার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা। আমার বিশ্বাস বাচ্চু চাচা (নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু) তার ভুল বুঝতে পারবেন ও তার বক্তব্য ফিরিয়ে নেবেন।

ফারুক বলেছেন, খান আতা পরিচালিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি মুক্তি পায় ৭৩ সালে। তখন বঙ্গবন্ধুর সরকার ক্ষমতায় ছিলো। ছবিটি নিয়ে তখনই বিতর্ক তৈরি হয়েছিলো। পরে মুক্তিযোদ্ধা মোফাজ্জ্বল হোসেন মায়া (বর্তমান ত্রাণ ও ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী) ছবিটি রিভিউ করে চালানোর অনুমতি দেন। মুক্তিযুদ্ধের সরকারই ছবিটি নিয়ে যখন আপত্তি করেনি তখন আপনি (নাসির উদ্দিন ইউসুফ) কেন খান আতার বিরুদ্ধে কথা বলছেন? তার মানে আপনি স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কথা বলছেন!

পরিচালক আজিজুর রহমান বলেন, খান আতা মুক্তিযুদ্ধের সময় ঝুঁকি নিয়েও বাংলা চলচ্চিত্র নিয়ে কাজ করেছেন। তো পাকিস্তানিদের হুমকি মাথায় নিয়েও যিনি কাজ করেছেন তিনি মুক্তিযোদ্ধা না রাজাকার?

পরিচালক সিবি জামান বলেন, খান আতার মতো মানুষকে নিয়ে যারা এমন মন্তব্য করতে পারে তাদেরকে ঘৃণা করি।

ডেইলি বাংলাদেশ/ এআর