Alexa বাড্ডায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

ঢাকা, সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ১ ১৪২৬,   ১৬ মুহররম ১৪৪১

Akash

বাড্ডায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪০ ২৯ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

রাজধানীর বাড্ডায় ১৪ বছর আগে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী শারমীন সুলতানা হিয়াকে খুনের দায়ে স্বামী মো. সাইদুর রহমান ওরফে মিল্টনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক মো. খাদেম উল কায়েস আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির পাশাপাশি তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে তাকে আরো ৩ মাস কারাভোগ করতে হবে। রায় ঘোষণার পর সাইদুর রহমানকে সাজা পরোয়ানা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর আফরোজা ফারহানা আহমেদ (অরেঞ্জ) এ তথ্য জানিয়েছেন।

২০০৪ সালে হিয়ার সঙ্গে সাইদুর রহমানের বিবাহ হয়। বিবাহের পর আসামি ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। হিয়ার সুখের কথা চিন্তা করে তার পরিবার আসামিকে দুই লাখ টাকা যৌতুক দেয়। এরপরও সে আরো যৌতুক দাবি করে। হিয়াকে বিয়ের সময় দেয়া ২০ ভরি স্বর্ণালংকার আসামি বিক্রি করে দেয়। ২০০৫ সালের ৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে সাইদুর রহমান ভিকটিম হিয়াকে গলা টিপে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে। হিয়ার মরদেহের পাশে একটি চিরকুটে আসামি লেখে, ‘আমি আমার প্রভুর নির্দেশে স্ত্রীকে খুন করলাম।’ পরে আসামি নিজে থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই ছিলেন।

হিয়াকে যৌতুকের জন্য হত্যার অভিযোগে ওই দিনই তার চাচা শাহাদাত হোসেন সরকার মুকুল থানায় মামলাটি দায়ের করেন। আসামি হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

এরপর মামলাটি তদন্ত করে বাড্ডা থানার এসআই মাজহারুল ইসলাম ওই বছরের ১৮ ডিসেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। পরের বছর ১ মার্চ আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেয় আদালত। মামলাটির বিচারকাজ চলার সময় আদালত চার্জশিটভূক্ত ২৫ জন সাক্ষীর মধ্যে ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে