বাংলাদেশ নিয়ে স্ট্যাটাস দিলেন জাকারবার্গ
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=135078 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৯ ১৪২৭,   ০৬ সফর ১৪৪২

বাংলাদেশ নিয়ে স্ট্যাটাস দিলেন জাকারবার্গ

নিউজ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:২৫ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশে মেনিনজাইটিস নামের স্নায়ুরোগের প্রার্দুভাব নিয়ে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

বৃহম্পতিবার রাতে দেয়া ফেসবুক পোস্টে জাকারবার্গের দাতব্য প্রতিষ্ঠান ও বায়োহাবের তৈরি একটু টুল ব্যবহারের প্রশংসা করেছেন।

ফেসবুক পোস্টে জাকারবার্গ লিখেছেন, সম্প্রতি বাংলাদেশের গবেষকেরা মেনিনজাইটিস প্রার্দুভাবের কারণ খুঁজে বের করতে ‘আইডিসেক’ নামের টুল ব্যবহার করছে। টুলটি তৈরি করেছে ‘চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ’ ও বায়োহাব নামের একটি দল।

‘আইডিসেক’ বা ইনফেকটিয়াশ ডিজিজ সিকোয়েন্সার হচ্ছে মূলত ওপেন সোর্স ও ক্লাউডভিত্তিক টুল। যে কেউ ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে তা ব্যবহার করতে পারে। তিনি আরো লিখেছেন, বায়োহাবের প্রযুক্তি এই টুল ব্যবহার করে শিশুদের রোগ প্রতিরোধের উপযোগী নানা ব্যবস্থা নেয়া যায়।

আর এ কাজের জন্য গেটস ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদও জানান জাকারবার্গ। আইডিসেক টুলটি স্বাস্থ্যকর্মীদের হাতে তুলে দিতে কাজ করছে গেটস ফাউন্ডেশন।

ছবি: সংগৃহীত

জাকারবার্গ আইডিসেক নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। ওই ভিডিওটি তিন লাখ ৪৩ হাজার ভিউ হয়েছে। এটি দুই হাজার ৬০০ শেয়ার ও এতে দুই হাজার ৭০০ মন্তব্য পড়েছে। এতে ২৪ হাজার প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা।

উল্লেখ্য, ২০১৬ ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম শুরু হয়। মেয়ে ম্যাক্সিমার জন্ম উপলক্ষে ‘চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ’ নামের দাতব্য প্রতিষ্ঠান গড়ার ঘোষণা দেন জাকারবার্গ।

এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জাকারবার্গ তার মোট সম্পদের ৯৯ শতাংশ (৪৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) দাতব্য কাজে ব্যয় করার ঘোষণা দেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ